জেলাতে দুয়ারে ভ্যাকসিন পরিষেবা চালু করে রাজ্যের মধ্যে নজির গড়ল কোচবিহার জেলা প্রশাসন

কোচবিহার, ১৭ জুনঃ এবার দুয়ারে সরকারের কায়দায় দুয়ারে ভ্যাক্সিন দেওয়ার কাজ শুরু করল কোচবিহার জেলা প্রশাসন। আজ কোচবিহার দুই নম্বর ব্লকের চকচকা হাইস্কুলে এরকমই একটি ভ্যাক্সিনেশন সেন্টারে রাজ্য সরকারের সেক্রেটারি অভিনব চন্দকে নিয়ে পরিদর্শনে যান কোচবিহারের জেলা শাসক পবন কাদিয়ান।

জেলা শাসক জানিয়েছেন, মূলত বয়সে প্রবীণ ও গ্রামাঞ্চলের বাসিন্দারা অনলাইনে রেজিস্টেশন করিয়ে ভ্যাক্সিন নিতে সমস্যায় পড়ছেন, তাঁদের কথা মাথায় রেখে যেখানে যেখানে দুয়ারে সরকারের ক্যাম্প করা হয়েছিল, সেই জায়গা গুলোকে চিহ্নিত করে ভ্যাক্সিনেশনের সেন্টার করা হচ্ছে।

ওই সেন্টার গুলোতে আসা বাসিন্দাদের একদিকে যেমন নাম নথিভুক্তের কাজ করানো হচ্ছে, তেমনি ভ্যাক্সিন দেওয়ার পর রিপোর্ট কার্ড প্রিন্ট করেও হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে। গ্রামাঞ্চলের পাশাপাশি শহরেও প্রবীণ নাগরিক যারা এখনও ভ্যাক্সিন নিতে পারেন নি, তাঁদের জন্য চালু করা হবে বলে জেলা শাসক পবন কাদিয়ান জানিয়েছেন।

অন্যদিকে কোচবিহার জেলা প্রশাসনের তৎপরতায় দ্রুত আক্রান্তের সংখ্যা কমে আসায় খুশি রাজ্য সরকারও। তাই কিভাবে এই জেলায় করোনা অতিমারি মোকাবিলা করা হচ্ছে, সেটা ক্ষতিয়ে দেখতে রাজ্য সরকারের সেক্রেটারি অভিনব চন্দ কোচবিহারে এসেছেন।

তিনি বলেন, “কোচবিহারে করোনা মোকাবিলায় দারুণ কাজ হচ্ছে। যেভাবে দুয়ারে সরকারের কায়দায় দুয়ারে ভ্যাক্সিন দেওয়া হচ্ছে, সেটা খুবই ভালো কাজ। এতে যারা অনলাইন ব্যবহারে অভ্যস্ত নয়। তাঁদের ভ্যাক্সিন নেওয়ার ক্ষেত্রে অনেক কাজে আসবে, এছাড়াও দুয়ারে সরকারের সেন্টার গুলো বেছে নেওয়ায় মানুষ অতি সহজেই সেখানে পৌছাতে পারবেন।”

শুধু তাই নয়, করোনার তৃতীয় ঢেউ প্রতিরোধে জেলা প্রশাসন কি কি ব্যবস্থা নিয়েছে, তা নিয়েও এদিন জেলা শাসকের মিটিং হলে জেলার আধিকারিকদের সাথে বৈঠক করেন অভিনব চন্দ। তৃতীয় ঢেউ নিয়ে কোচবিহার জেলা প্রশাসনের প্রস্তুতি নিয়েও সন্তুষ্ট রাজ্য সরকারের পাঠানো সেক্রেটারি অভিনব চন্দ বলে জানা গিয়েছে।