Ad
দেশ

মারাত্মক অভিযোগ সোনু সুদের উপর, দিয়েছেন ২০ কোটি টাকা কর ফাঁকি

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : করোনা কালে দুস্থ থেকে শুরু করে কর্মহীন, পরিযায়ী শ্রমিকদের ত্রাতার ভূমিকার অবতীর্ণ হয়েছিলেন তিনি। গোটা দেশ তাঁকে গরিবের মসিহা তকমাও দিয়েছে।

কিন্তু এবার সেই অভিনেতা সোনু সুদের (Sonu Sood) বিরুদ্ধেই মারাত্মক অভিযোগ তুলল কেন্দ্রীয় প্রত্যক্ষ কর সংস্থা (CBDT)। তাদের অভিযোগ, অভিনেতা এবং তাঁর সহযোগীরা ২০ কোটি টাকা কর ফাঁকি দিয়েছেন। এই অভিযোগে তোলপাড় দেশ।

Ad

কয়েকদিন আগে পর পর দুদিন সোনু সুদের বাড়ি-সম্পত্তিতে আয়কর আধিকারিকরা হানা দেন। নথিপত্র ঘেঁটে দেখেন। সেই খবর শিরোনামে ছিল। তারপর শনিবার আয়কর আধিকারিকরা অভিযোগ করেছেন, লখনউয়ের একটি ইনফ্রাস্ট্রাকটার গ্রুপের সঙ্গে তাঁর যোগ করেছে। জানা গিয়েছে, কিছু হিসাব বহির্ভূত আয় আনসিকিওরড লোনসের মারফত তাঁর কাছে এসেছে বেশ কিছু ভুঁইফোড় সংস্থার কাছ থেকে।

এছাড়াও অভিযোগ, সোনু সুদ বৈদিশিক দান নিয়ন্ত্রণ আইন ভঙ্গ করেছেন। বিদেশ থেকে বেশ কিছু অনুদান সংগ্রহ করেছেন তিনি যা বৈধ নয়। আয়কর বিভাগ লাগাতার ৪৮ বছরের এই অভিনেতার একাধিক সম্পত্তিতে হানা দেয়। অভিযোগ, নথিপত্র খতিয়ে দেখার পর তদন্তে উঠে এসেছে কর ফাঁকি দিয়েছেন সোনু সুদ। বেশ কিছু ভুঁইফোড় সংস্থার কাছ থেকে হিসাব বহির্ভূত টাকা এসেছে অভিনেতা ও তাঁর সহযোগীর অ্যাকাউন্টে। এরকম ২০টি লেনদেনের প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে।

অভিনেতার চ্যারিটি ফাউন্ডেশনের অ্যাকাউন্ট ঘেঁটে দেখা গিয়েছে গত বছর ২১ জুলাই থেকে এবছর ১ এপ্রিল পর্যন্ত তাঁর সংস্থা ১৮.৯৪ কোটি অনুদান সংগ্রহ করেছে। তার মধ্যে মাত্র ১.৯ কোটি চাকা ত্রাণকাজে ব্য়বহৃত হয়েছেষ বাকি ১৭ কোটি টাকা এখনও অব্যবহৃত রয়েছে অ্যাকাউন্টে। এছাড়াও বিদেশ থেকে ক্রাউড ফান্ডিংয়ের মাধ্যমে ২.১ কোটি টাকা অনুদান সংগ্রহ করা হয়েছে যা নিয়ম বিরুদ্ধ।

আরও পড়ুন