দেশ জুড়ে করোনা সংক্রমণ রুখতে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর, একনজরে জানুন কেন্দ্রের নতুন নির্দেশাবলী

নয়া দিল্লিঃ দেশজুড়ে মারণ ভাইরাসের তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড পরিস্থিতি। দিনে দিনে রেকর্ড হারে মানুষজন করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। থেমে নেই মৃতের সংখ্যাও। এমন উদ্বেগজনক পরিস্থিতি মোকাবিলায় বাঁধ সেধেছে দেশের বিপর্যস্ত স্বাস্থ্য পরিকাঠামো। হাসপাতালে নেই শয্যা, মিলছে না পর্যাপ্ত অক্সিজেনও।

এই সংকটকালে আজ ফের উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Modi)। আর এই বৈঠক থেকেই একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়ার পাশাপাশি রাজ্যগুলিকেও নানান নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। এদিনের বৈঠকে (Covid Meet) দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতি এবং টিকাকরণ অভিযান নিয়ে পর্যালোচনা করা হয়।

আজকের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর তরফে যে নির্দেশ গুলি দেওয়া হল, সেগুলি নীচে তুলে ধরা হল —

১) উচ্চ পজিটিভিটি যুক্ত রাজ্য গুলিকে আক্রান্তের সঠিক সংখ্যা রিপোর্টের নির্দেশ।

কোভিড সম্পর্কিত সমস্ত আপডেট পড়ুন এখানে

২) গ্রামীণ অঞ্চলে মেডিকেল অক্সিজেন বণ্টন, প্রয়োজনে স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার পরামর্শ।

৩) আশা ও অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের ক্ষমতায়নের নির্দেশ।

৪) উচ্চ পজিটিভিটি যুক্ত জেলাগুলিতে করোনা পরীক্ষা করার জন্য কর্মকর্তাদের নির্দেশ।

৫) ভেন্টিলেটর সব রাজ্য ব্যবহার করছে কি না, সেই বিষয়ে জানতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) অডিট করার সিদ্ধান্ত।

প্রসঙ্গত, শনিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা (Corona) আক্রান্ত হয়েছে ৩ লক্ষ ২৬ হাজার ৯৮ জন। যা শুক্রবারের থেকে অনেকটাই কম। শুক্রবার আক্রান্ত হয়েছিল ৩ লক্ষ ৪৩ হাজার ১৪৪ জন। করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৩ লক্ষ ৫৩ হাজার ২৯৯ জন। যা দৈনিক আক্রান্তের থেকে বেশ খানিকটা বেশি।এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ৪৩ লক্ষ ৭২ হাজার ৯০৭জন। করোনাজয়ীর সংখ্যা আশার আলো দেখাচ্ছে চিকিত্‍সকদের। গত একদিনে করোনার বলি হয়েছে ৩ হাজার ৮৯০ জন। টানা দুদিন কমলো মৃত্যু সংখ্যাও। শুক্রবার করোনার কামড়ে মৃত্যু হয়েছিল চার হাজারের উপরে।

এখন পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ২ লক্ষ ৬৬ হাজার ২০৭ জনের। মোট সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ৩৬ লক্ষ ৭৩ হাজার ৮০২। গতকাল ছিল ৩৭ লক্ষ ৪ হাজার ৮৩৯ জন। এখনও পর্যন্ত ১৮ কোটি ৪ লক্ষ ৫৭ হাজার ৫৭৯ জনের টিকাকরণ করা হয়েছে।