Ad
খেলাদেশ

অপমানের জবাব দিতে মাঠে নামতে মুখিয়ে মহম্মদ শামি

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : ২০১৫ কিংবা ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ। অথবা অন্য কোনও মঞ্চ। পাকিস্তানকে দেখলেই জ্বলে উঠতেন মহম্মদ শামি (Mohammed Shami)। অথচ এ বারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে (WT20) বাবর আজমদের (Babar Azam) বিরুদ্ধে প্রত্যাশা পূরণ করতে না পারার জন্য তাঁকে ‘গদ্দার’ অপবাদ শুনতে হয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে রাতারাতি তিনি অনেকের কাছে ‘ভিলেন’ বনে গিয়েছিলেন। তবে সেই দুঃসময় কাটিয়ে ফের মাঠে নেমে পড়লেন ‘সহেসপুর এক্সপ্রেস’। এই মুহূর্তে তাঁর লক্ষ্য রবিবার নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে দলকে জয় এনে দেওয়া।

Ad

নেটে ঘাম ঝরানোর সঙ্গে টুইটারে একটি ছবিও পোস্ট করলেন শামি। ছবিতে দেখা যাচ্ছে যে তিনি ও জসপ্রীত বুমরা জাতীয় দলের একাধিক তরুণ বোলারদের সঙ্গে কথা বলছেন। প্রতিভাবান ক্রিকেটারদের বল হাতে গুরুত্বপূর্ণ উপদেশ দিচ্ছেন। আর সেই আলোচনা মগ্ন হয়ে শুনছেন শিক্ষার্থীরা। শামি লিখেছেন, ‘ফের মাঠে নেমে পড়লাম। দলের তরুণ প্রতিভাদের সঙ্গে আলোচনা বেশ উপভোগ করেছি। এ বার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলতে মুখিয়ে রয়েছি।’

গত ম্যাচে দুই পাক ওপেনার বাবর আজম ও মহম্মদ রিজওয়ানের বিরুদ্ধে শামি ৩.৫ ওভারে ৪৩ রান দিয়েছিলেন। এরপর ম্যাচ শেষ হতেই শামিকে লক্ষ্য করে সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণ করা শুরু হয়। ইনস্টাগ্রামে শামির ছবির নীচে অশ্রাব্য ভাষায় আক্রমণ করা হয়। এমনকি তিনি নাকি পাকিস্তানের থেকে টাকা নিয়েছেন! এমন মারাত্মক অভিযোগ তোলা হয়েছিল। তবে শামির পাশেও দাঁড়িয়েছেন  নেটিজেনদের একাংশ। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির (Virat Kohli)দিকে প্রশ্ন ছুড়ে জিজ্ঞেস করেছিলেন যে, ‘বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে হাঁটু মুড়ে বসে প্রতিবাদ জানালেন। সতীর্থের বিরুদ্ধে যে আক্রমণ চলছে, তাতে সতীর্থের পাশেও দাঁড়ান।’

সোশ্যাল মিডিয়াতে আক্রান্ত হলেও সচিন তেন্ডুলকর (Sachin Tendulkar), বীরেন্দ্র শেহওয়াগ (Virender Sehwag), যুবরাজ সিং থেকে শুরু করে বিপক্ষের ওপেনার মহম্মদ রিজওয়ান পর্যন্ত শামির পাশে দাঁড়িয়েছিলেন।

আরও পড়ুন