দেশ

অনেকটা দাম কমল ভোজ্য তেলের

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : পেট্রল-ডিজেলের পর এবার অনেকটা কমছে ভোজ্য তেলের দাম। কেন্দ্র একাধিক ভোজ্য তেলের উপর বেসিক ডিউটি বা সাধারণ শুল্ক প্রত্যাহার করতেই বাজারে তেলের দাম কমতে শুরু করেছে।

শুক্রবার কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রকের তরফে এমনটাই দাবি করা হয়েছে। কেন্দ্র বলছে, উত্‍সবের মরশুমে শুক্রবার বাজারে বাদাম তেল, সয়াবিন তেল এবং সূর্যমুখী তেলের দাম কমেছে ৫ থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত কমেছে। যদিও, সরষের তেলের দাম কমেনি।

শুক্রবার কেন্দ্রীয় খাদ্যসচিব শুধাংশু পাণ্ডে জানিয়েছেন, ‘সবচেয়ে খারাপ সময় আমরা পেরিয়ে এসেছি।’ ভোজ্য তেলের জোগান বাড়া, শুল্ক কমানো এবং স্টক কমানোর ফলে এখন দাম অনেকটাই কমানো গিয়েছে। গৃহস্থালির নিত্য প্রয়োজনীয় তেলের দাম নিয়ন্ত্রণ ও উপভোক্তাদের স্বস্তি দিতে কয়েকজন আমদানিকারক ও রপ্তানিকারক ছাড়া, ভোজ্যতেল ও তেলের বীজের ব্যবসায়ীদের ক্ষেত্রে ১ মার্চ পর্যন্ত স্টকের সর্বোচ্চ সীমা আরোপ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। শুক্রবার কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়, এই তেলগুলির উপর কৃষি সেস এবং সাধারণ শুল্ক অনেকটাই কমানো হয়েছে। যার সুফল মিলছে খোলা বাজারে। যদিও, সরষের তেলের দাম যে এখনও চিন্তার বিষয় তা স্বীকার করে নিয়েছেন কেন্দ্রীয় খাদ্যসচিব।

কিছুদিন আগেই উত্‍সবের মরশুমের কথা মাথায় রেখে বিভিন্ন ভোজ্য তেল বিক্রয়কারী সংস্থাকে দাম কমাতে অনুরোধ করেছিল কেন্দ্র। যার প্রেক্ষিতে ভোজ্য তেলগুলির সংগঠন সলভেন্ট এক্সট্র্যাক্টর অ্যাসোসিয়েশন তথা এসইএ ভোজ্য তেলগুলির দাম প্রতি কেজিতে ৩ থেকে ৫ টাকা কমিয়ে দেয়। তবে, তেল বিক্রয়কারী সংস্থাগুলির একাধিক সংগঠন জানিয়ে দেয়, করের বোঝা সরিয়ে তাঁদের পক্ষে ভোজ্য তেলের দাম বেশি কমানো সম্ভব নয়। তারপরই কেন্দ্র একাধিক অশোধিত তেলের উপর বেসিক ডিউটি বা সাধারণ শুল্ক পুরোপুরি প্রত্যাহার করে। আগে আড়াই শতাংশ হারে বেসিক ডিউটি নেওয়া হত। যা কিনা এখন পুরোপুরি শূন্য।

Ad

[ লেটেস্ট খবর এবং আপডেট জানার জন্য ফলো করুন ইউবিজি নিউজ ফেসবুক পেজ । ব্রেকিং নিউজ এবং ডেইলি খবরের আপডেটে পেতে যুক্ত হোন হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে  ]