Ad
দেশ

তথাগত রায় বিজেপিতে এসে কাজ করতে চাইলে তাঁকে স্বাগত” – সায়ন্তন বসু

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ :-” তথাগত রায় রাজ্য বিজেপির সভাপতি ছিলেন, তিনি তিনটি রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে কাজ করেছেন। বিজেপিতে তিনি আবার এসে কাজ করতে চাইলে তাঁকে স্বাগত জানাব।

তাঁকে সাথে নিয়েই এরাজ্যে কাজ করতে আমরা আগ্রহী ” উত্তর দিনাজপুর জেলার করনদীঘিতে থানা ঘেড়াও কর্মসুচীতে যোগ দিয়ে এসে এমন মন্তব্যই করলেন বিজেপির রাজ্য সাধারন সম্পাদক সায়ন্তন বসু।

Ad

 তবে এবিষয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বই চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছেন বিজেপির এই রাজ্য শীর্ষ নেতা।

আইনের সুশাসন প্রতিষ্ঠার দাবিতে উত্তর দিনাজপুর জেলার করনদিঘী থানার সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করে উত্তর দিনাজপুর জেলা বিজেপি। সেই কর্মসূচিতে যোগ দিতে আসেন বিজেপির রাজ্য সাধারন সম্পাদক সায়ন্তন বসু।

এদিন তিনি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে জানান, একসময় তৃনমূল কংগ্রেসের সাথে কেন্দ্রে আমাদের জোট হয়েছিল যা ছিল ঐতিহাসিক ভূল। আমরা এখন সেই ভূলের প্রায়শ্চিত্ত করছি। রাজ্যে বিজেপির ক্ষমতায় আসা প্রসঙ্গে বলেন বিজেপি কখনই নির্দিষ্ট কোনও একজনকে মুখ করে নির্বাচনে লড়াই করেনা।

 বাংলায় সরকার গড়ার ক্ষেত্রে তিনি আশাবাদী। দিলীপ ঘোষও হতে পারেন তথাগত রায়ও হতে পারেন। বিজেপির জয়ী বিধায়কেরা কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে জানাবে তারাই ঠিক করবেন কে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হবেন। এরাজ্যে বর্তমানে ১ কোটি বিজেপি সদস্য আছে, সেটাকে ৩ কোটিতে নিয়ে যাওয়া হবে বলে দাবি করেন বিজেপির রাজ্য সাধারন সম্পাদক সায়ন্তন বসু।

 এদিন করনদিঘী থানায় ঘেড়াও কর্মসুচীতে যোগ দেন সায়ন্তন বসু, বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার, বিজেপি জেলাসভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী সহ হাজার হাজার বিজেপি কর্মী সমর্থক।

বাইট ১) সায়ন্তন বসু ( সাধারণ সম্পাদক, রাজ্য বিজেপি)

আরও পড়ুন