বিজেপির নবান্ন অভিযানে শিখের পাগড়িতে হাত পুলিশের, ক্ষোভ প্রকাশ হরভজনের

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : বৃহস্পতিবার বিজেপির নবান্ন অভিযানে অস্ত্র হাতে গ্রেফতার হন বলবিন্দর সিং নামে এক যুবক। তাঁর কাছে থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ। যদিও ওই রিভলবারটি লাইসেন্সপ্রাপ্ত বলে দাবি করেছেন পেশায় নিরাপত্তা কর্মী বলবিন্দর। কিন্তু তাঁকে ধরতে গিয়ে পুলিশ তাঁর পাগড়িতে টান দিয়েছে বলে অভিযোগ। এনিয়ে এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করে এ নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানালেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার হরভজন সিং!

এদিন একটি ভিডিয়ো নিজের ট্যুইটারে হ্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন হরভজন। ইমোজির মাধ্যমে টুইটারে ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ট্যাগ করে তিনি লিখেছেন, “বিষয়টি একটু দেখুন। এটা একেবারেই ঠিক ঘটনা হয়নি”।

এদিকে সেদিনের এই ঘটনা নিয়ে আসরে নেমেছে বিজেপিও। ওই ভিডিয়ো পোস্ট করে টুইট করেন বিজেপি নেতা ইমপ্রীত সিং বক্সি। তিনি অভিযোগ করেছেন, ”প্রিয়াংশু পাণ্ডের নিরাপত্তারক্ষী বলবিন্দর সিংয়ের পাগড়ি টেনে খুলে দেওয়া হয়েছে। বর্বরোচিতভাবে তাঁকে মেরেছে পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ। দোষী পুলিশ কর্মীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করতে হবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা ছিল এই পাগড়ি পরিহিত শিখদেরই।”