করোনার কোভিশিল্ড টিকা তৈরির কারখানায় ভয়াবহ আগুন, ঘটনাস্থলের দমকলের ১০টি ইঞ্জিন

UBG NEWS: মহারাষ্ট্রের পুণেকে করোনার টিকা কোভিশিল্ড প্রস্তুতকারী সংস্থা সেরাম ইনস্টিটউটে আগুন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সেরাম ইনস্টিটউটের মঞ্জরী প্ল্যান্টে এই আগুন লাগে। ১ নম্বর টার্মিনালের গেটের পাশেই ছিল একটি নির্মীয়মাণ ভবন। সেখানেই আগুন লেগে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে বাড়়িটির দু’টি তলে। কালো ধোঁওয়ায় ঢেকে যায় এলাকা। । খবর পেয়ে অগ্নিনির্বাপণ বাহিনীও পৌঁছে যায় ঘটনাস্থলে। যদিও এই অগ্নিকাণ্ডে সেরামের  টিকা প্রস্তুতকারী জায়গাটি কোনওভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি বলেই খবর সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে।

দুপুর তিনটে নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় দমকলের অন্তত ১০টি ইঞ্জিন। টার্মিনাল লাগোয়া ‘এসইজেড৩’ ভবনে আগুন নিয়ন্ত্রণ আনার চেষ্টা জারি রয়েছে এখনও। স্থানীয় প্রশাসনের প্রতিনিধিরা এসে পৌঁছেছেন সেরামের মঞ্জরীর কারখানার সামনে। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে কথা বলেন, পুণের পুরপ্রধানের সঙ্গে।

দুপুর তিনটে নাগাদ এই অগ্নিকাণ্ড  ঘটে। পুণের মঞ্জরি এলাকায় সেরামের টিকা তৈরির এই কারখানা। সেখানেই আগুন লাগে। ১ নম্বর টার্মিনালের লাগোয়া এস ই জেড ২৩ ভবনে চতুর্থ ও পঞ্চম তলে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে আগুন।

প্রচুর পরিমাণে করোনার টিকা মজুত থাকার কথা সেরামে। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তা নিয়ে উদ্বেগ ছড়িয়েছে গোটা দেশে।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যলয় ও ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা অ্যাস্ট্রাজেনেকার তত্ত্বাবধানে করোনার টিকা কোভিশিল্ড তৈরি করছে সেরাম। এই মুহূর্তে গোটা দেশে যেহেতু বিপুল পরিমাণে কোভিশিল্ড টিকা সরবরাহের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।  এরই মধ্যে কোভিশিল্ড প্রস্তুতকারী সেরামের কারখানায় আগুন লাগায় আতঙ্ক বেড়েছিল। যদিও  একটি সংবাদ সংস্থা সূত্রে জানানো হয়েছে, টিকা তৈরির ইউনিট এই আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি।