BUDGET 2021: কতটা ছাড় আয়করে ? কী উপহার দিলেন অর্থমন্ত্রী?জেনেনিন এখানে

নয়াদিল্লি: একদিকে কোভিড মোকাবিলার চ্যালেঞ্জ, তার সঙ্গে কৃষক আন্দোলন, আর এরই সাথে সংযুক্ত হয়েছে ৪ পুদুচেরি ও রাজ্যে হাইভোল্টেজ ভোট। এই সমস্ত চ্যালেঞ্জকে সামনে নিয়ে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন সংসদে পেশ করলেন ২০২১ সালের বাজেট (2021 Budget)। এই বাজেটের প্রথম পর্বের প্রস্তাবে কোন কোন অংশে জোর দেওয়া হল, আর তা বিজেপির কর্মসূচিকে কীভাবে তরান্বিত করবে , তা দেখা যাক।

 শুরুতেই দিলেন আত্মনির্ভ ভারতের প্রতিশ্রুতি৷ বাজটে প্রস্তাবে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী জানান, গোটা দেশজুড়ে ৮০ কোটি মানুষকে নিরখচায় রেশন দেওয়া হয়েছে৷ করোনা টিকা নিয়েও বড়সড় ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী৷ আজ বাজেটে স্বাস্থ্য ক্ষেত্রেও বড় ঘোষণা করেন নির্মলা৷ জানান, আগামী দিনে আর ২টি টিকা বাজারে চলে আসবে৷ ১০০টি দেশে টিকা বিক্রি করবে সরকার৷ রাষ্ট্রতত্ত্ব সংস্থাকে বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়ারও ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী৷ প্রবীণদের জন্য বিশেষ কিছু সুবিধা দেওয়ার বিষয়ে বাজেটে প্রস্তাব দিয়েছেন সীতারামন৷ তবে, সাধারণের আয়কর কাঠামোয় কোনও পরিবর্তন আনা হয়েছে?

বাজেট ঘোষণায় অর্থমন্ত্রী জানান, স্বাস্থ্যখাতে ৫৪ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ হবে৷ আগামী ৬ বছরে এটি খরচ হবে বলেও জানান তিনি৷ স্বাস্থ্যখাতে ১৩৭ শতাংশ বরাদ্দ বৃদ্ধি ঘোষণা করেন নির্মলা সীতারমণ৷করোনা টিকার জন্য ৩৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে বলে জানান নির্মলা সীতারমণ৷ স্বাস্থ্য খাতে মোট ২ লক্ষ ৮৩ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব দিয়েছেন নির্মলা৷ বাংলার জন্য বড় বাজেট বরাদ্দের ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী৷ কলকাতা থেকে শিলিগুড়ি পর্যন্ত রাস্তা সংস্কার জন্য বাজেট বরাদ্দ করেছেন অর্থমন্ত্রী৷ ৬৩ হাজার কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দের ঘোষণা করেছেন নির্মলা৷ বাংলায় ৬৭৫ কিমি রাস্তা তৈরি হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি৷ বাংলার জাতীয় সড়কের জন্য ২৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে৷ বেশকয়েকটি বাণিজ্যিক পথ নির্মাণের ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী৷ একই সঙ্গে জাতীয় পরিকাঠামো পাইপলাইন ২৩৭টি প্রকল্প সম্পূর্ণ হয়েছে হয়েছে জানান নির্মলা৷ খড়গপুর থেকে বিজয়ওয়াড়ায় নতুন ফ্রেইট করিডর ও গোনো থেকে ডানকুনিতে নতুন ফ্রেইট করিডর নির্মাণের ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী৷ কলকাতা থেকে শিলিগুড়ি পর্যন্ত জাতীয় সড়ক সংস্কার হবে বলেও জানিয়েছেন নির্মলা৷ এদিন রেলের জন্য ১ লক্ষ ২৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করেথেন নির্মলা সীতারমণ৷ জাতীয় রেল প্ল্যান তৈরি করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি৷ মেট্রো লাইট, মেট্রো নিউ নামের দুটি প্রকল্প চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী৷ পর্যটকদের জন্য বিশেষ কোচ তৈরির ঘোষণা করেছেন নির্মলা৷

রাষ্ট্রতত্ত্ব সংস্থাকে বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়ারও ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী৷ আজ বাজেট ঘোষণা করে ইনস্যুরেন্স কোম্পানিতে ৭৪ শতাংশ বিদেশি বিনিয়োগের দরজা খুলে দেওয়ার ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী৷ আগে ছিল ৪৯ শতাংশ৷ আইডিবিআই ব্যাঙ্কের সঙ্গে রাষ্ট্রতত্ত্ব বিমা সংস্থার সংযুক্তিকরণ করা হবে বলেও জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী৷ বাজারে আরও বেশি LIC-র শেয়ার বিক্রির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ বিলগ্নিকরণের মাধ্যমে ১.৭৫ লক্ষ কোটি টাকা ঘরে তোলার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে কেন্দ্র৷ দুর্বল ব্যাঙ্কের জন্য তহবিল বাড়ানোর ঘোষণা করা হয়েছে৷ সরকারি সম্পত্তি পুনর্বিন্যাসের জন্য নতুন সংস্থা তৈরি হবে৷ অলাভজনক সম্পত্তি ফেলে রাখা যাবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি৷

প্রবীণদের জন্য বিশেষ কিছু সুবিধা দেওয়ার বাজেট প্রস্তাব দিয়েছেন সীতারামন৷ জানিয়েছেন, ৭৫ বছরের বেশি বয়সীদের ক্ষেত্রে ইন্টারেস্ট ইনকামের উপর সম্পূর্ণ ছাড়৷ এছাড়াও ক্ষুদ্র করদাতাদের উপর থেকে করের বোঝা কমানোর কথা ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী৷ প্রবীণ নাগরিকদের জন্য করের ক্ষেত্রে ছাড়ের প্রস্তাব দেওয়া হচ্ছে৷ প্রত্যক্ষ করের সুবিধা দেওয়া হয়েছে৷ ৭৫ বছর ও তাঁর উর্ধ্বে প্রবীণদের জন্য আয়কর রিটার্ন ফাইল না করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে৷ তবে এই সুবিধা পাবেন শুধুমাত্র পেনশন এবং সুদের উপর নির্ভর করা প্রবীণরা৷ তবে, এখানেও থাকছে প্রশ্ন৷ কেননা, এই মুহূর্তে টিডিএস কেটে সুদ পেয়ে থাকেন প্রবীণ ব্যক্তিরা৷ ফলে, সেই টিডিএস সংগ্রহ করতে গেলে প্রবীণ নাগরিকদের আয়কর দাখিল করতে হবে৷ ফলে, শেষ বয়সে এসেও কেটে নেওয়া টিডিএস পেতে ফাইল করতেই হবে প্রবীণ নাগরিকদের৷

প্রবীণদের জন্য কিছু ছাড়া মিললেও বাজেট ২০২১-২২ অর্থবর্ষের সাধারণ আয়কর দাতাদের জন্য তেমন কোনও ঘোষণা করা হয়নি৷ ফলে, ২.৫ থেকে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বার্ষিক আয়ে ৫ শতাংশ ও শর্ত সাপেক্ষে ০ শতাংশ, আগের হার কার্যকর রয়েছে৷ আগের মতো বছরে ২.৫ থেকে ৫ লক্ষ টাকা সাশ্রয় থাকছে৷ গৃহ ঋণের সুদ ১.৫ লক্ষ পর্যন্ত করমুক্ত করার প্রস্তাব দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী৷ ৩১ মার্চ ২০২২ পর্যন্ত এই সুবিধা মিলবে বলেও জানিয়েছেন নির্মলা৷ শেয়ার ডিভিডেন্ডে TDS কাটা হবে না৷ কাঁচামালের কাস্টমস ডিউটি কমানো হচ্ছে বলেও জানান তিনি৷ জিএসটিকে খাতে রেকর্ড কালেকশন হয়েছে৷ ব্যবসায়ীদের জন্য বেশকিছু ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী৷ জানিয়েছেন, ৫ থেকে ১০ কোটি বার্ষিক লেনদেন সংস্থাকে ডিজিটাল অডিট করাতে হবে৷

লকডাউনের জেরে দীর্ঘ ১ বছর ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ৷ চমর সমস্যায় দেশের কোটি কোটি পড়ুয়া৷ আর পরিস্থিতিতে দেশের নতুন শিক্ষানীতির প্রশংসা ও বেশ কিছু স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যাল নির্মাণের ঘোষণা করে কার্যত শিক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে বেশি সময় দিলেন না অর্থমন্ত্রী৷ শুধু জানিয়েছেন, নতুন শিক্ষানীতি দেশে বিরাট পরিবর্তন আনবে৷ জানান, আদিবাসী এলাকায় ৭৮৫টি নতুন স্কুল তৈরি করা হবে৷ উদ্বৃত্ত জমি রাজ্যগুলিকে বিক্রি করার জন্য বলা হয়েছে৷ উচ্চশিক্ষা কমিশন তৈরি করা হবে বলে জানান নির্মলা সীতারমণ৷ এদিন অর্থমন্ত্রী জানান, ইতিহাসে প্রথমবার ডিজিটালি জনগণনা হবে দেশে৷ জানান, ভারতের ইতিহাসে এই প্রথম, গোটা দেশজুড়ে ডিজিটাল জনগণনা করা হবে৷ এই কাজে ৭ হাজার ৬০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে৷

আজ বাজেট প্রস্তাবে রাজকোষ বিপুল ঘাটতির পূর্বাভাস দেন অর্থমন্ত্রী৷ জানান, চলতি অর্থবর্ষে রাজকোষ ঘাটতি জিডিপির ৯.৫ শতাংশ হতে পারে৷ সেই ঘাটতি কমানোর নানান উপায় নিতে হবে৷ তারপরও ৮০,০০০ কোটি টাকা আরও লাগবে৷ আর সেই কারণে আগামী দু’মাসে বাজার থেকে টাকা তোলার চেষ্টা করা হচ্ছে৷ আগামী অর্থমন্ত্রী ২০২১-২২ সালে রাজকোষ ঘাটতি ৬.৮ শতাংশ হবে৷ ২০২৫-২৬ সালের মধ্যে রাজকোষ ঘাটতি ৪.৫ শতাংশে বেঁধে রাখার উপর জোর দেওয়া হবে৷