বড় ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর, বাড়ল বিনামূল্যে রেশনের মেয়াদ

নয়াদিল্লি, ৭ জুনঃ গত লকডাউনে টানা ছমাস বিনামূল্যে রেশন দিয়েছিল কেন্দ্রের মোদী সরকার। দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার সময় চলতি বছরের মে ও জুন মাসে বিনামূল্যে রেশন বিলির ঘোষণা করা হয়েছিল আগেই। এবার বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার সেই মেয়াদ আরও বাড়াল কেন্দ্র।

সোমবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানান, দিপাবলি অর্থাৎ নভেম্বর মাস পর্যন্ত দেশের ৮০ কোটি মানুষকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হবে। এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, “প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনার মেয়াদ দিপাবলি অবধি বাড়ানো হল। ৮০ কোটি দরিদ্র মানুষ এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন।” প্রসঙ্গত, এ রাজ্যে বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার কথা আগেই ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অভিযোগ উঠেছে, করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যর্থ কেন্দ্রীয় সরকার। বিরোধীদের অভিযোগ, করোনা পরিস্থিতিতেও রাজনীতি করতে ব্যস্ত মোদী সরকার। আমজনতা, দেশের অর্থনীতি নিয়ে চিন্তা নেই তাঁদের। এমনকী, করোনা পরিস্থিতি সামাল দেওয়া নিয়ে রাষ্ট্রিয় স্বয়ংসেবক সংঘ বা আরএসএসও মোদী-শাহের জুটির উপর চটেছিল বলে সূত্রের খবর।

এর আগে গত এপ্রিলে জাতির মুখোমুখি হয়ে বার্তা রেখেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সেবার করোনার টেউয়ে বেলাগাম সংক্রমণে বিধ্বস্ত ছিল গোটা দেশ। জাতির উদ্দেশে ভাষণের আগে জল্পনা ছিল ফের কি দেশ জুড়ে জারি হবে লকডাউন? তবে ভাষণের শুরুতেই সাফ জানিয়ে দেন, ‘দেশকে লকডাউনের হাত থেকে বাঁচাতে হবে।

রাজ্যগুলোকে অনুরোধ করব, লকডাউনকে শেষ বিকল্প হিসেবে ভাবতে। তুলনায় মাইক্রো কনটেনমেন্ট জোনের দিকে নজর দেওয়া হোক।’ একইসঙ্গে করোনাবিধি মানার উপর জোর দেন। সেই ভাষণেই মোদী ঘোষণা করেন পয়লা মে থেকে ১৮ বছরের উর্ধ্বে সমস্ত নাগরিককে টিকা দেওয়া হবে।