নির্বাচনের আগে বদলি কমিশনের ৩ আধিকারিক, জল্পনা তুঙ্গে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : ভোটের আগে রাজ্য নির্বাচন কমিশনে এলেন নতুন তিনজন আধিকারিক৷ এরা হলেন বিজিত ধর, সৌরভ বারিক ও অরিন্দম নিয়োগী৷

জানা গেছে, নির্বাচন কমিশন নতুন তিনজন আধিকারিককে নিয়োগ করল রাজ্য মুখ্য নির্বাচনী অফিসার (সিইও) দফতরে৷ এদের মধ্যে নিজেরাই পছন্দ করে নিলেন ২ আধিকারিককে৷ আর রাজ্য থেকে পাঠানো তালিকা থেকে একজনকে নেওয়া হয়েছে৷ রাজ্য ৯ জন আধিকারিকের তালিকা পাঠিয়েছিল৷

রাজ্যে এসে পুলিশ ও প্রশাসনিক কর্তাদের সঙ্গে আলোচনার পাশাপাশি রাজনৈতিক দলগুলির প্রতিনিধিদের সঙ্গেও কথা বলেছেন মুখ্য নির্বাচনী কমিশনার। কমিশনের কর্তাদের নানা অভিযোগ জানিয়েছে রাজনৈতিক দলগুলিও।

একদিকে বিরোধী দলগুলি যেমন শাসকদলের বিরুদ্ধে ভুরি-ভুরি অভিযোগ জানিয়েছে, তেমনি তৃণমূলও পাল্টা অভিযোগ জানিয়েছে কমিশনের কাছে। অবাধ ভোট করতে চেষ্টার কসুর করা হবে না বলে আগেই জানিয়েছিল কমিশন। এবার সেই তৎপরতাই ফের চোখে পড়ল।

রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী অফিসার(সিইও) দফতরের পক্ষ থেকে নির্বাচন কমিশনকে ওই ৩টি শূন্যস্থান পূরণের জন্য ৯ জনের নাম পাঠানো হয়েছিল। আইন মেনে সেই নাম চেয়ে পাঠানো হয়েছিল নবান্ন থেকে। সেখান থেকেই এদিন ওই ৩জনকে কমিশন বেছে নিয়েছে বলে জানা গেছে।

এর আগে যে ৩জনকে অপসারিত করা হয়েছিল তাঁদের মধ্যে শৈবাল বর্মন এমসিসি অর্থাৎ মডেল কোড অফ কন্ডাক্ট এবং আইন-শৃঙ্খলা দেখতেন। অনামিকা মজুমদার দেখতেন ইভিএম এবং ভোট কর্মীদের প্রশিক্ষণ পর্ব। অমিত জ্যোতি ভট্টাচার্য দেখতেন মিডিয়া সেল এবং ভোটের প্রচার সংক্রান্ত সমস্ত কাজকর্ম।

রাজ্য সরকার যে ৯ জনের নাম পাঠিয়েছিল কমিশনের কাছে তার মধ্যে অ্যাডিশনাল সিইও পদের জন্য যে ৩টি নাম গিয়েছিল তা হল শিলাদিত্য বসু রায়, দেবল কুমার ঘোষ ও বিজিত ধর। কমিশন বিজিত ধরকে ওই পদের জন্য বেছে নিয়েছে। বিজিত ১৯৯২ সালের রাজ্য সিভিল সার্ভিসের ক্যাডার।