ট্র্যাফিক জরিমানা থেকে বাঁচতে আত্মহত্যার হুমকি তরুণীর, অসহায় পুলিশ

UBG NEWS, ওয়েব ডেস্ক : ফোনে কথা বলতে বলতে স্কুটার চালাচ্ছিলেন তিনি। হেলমেটটাও ঠিক করে পরা ছিল না। তার উপরে ভাঙা ছিল নম্বরপ্লেট। এই অবস্থায় তাঁর পথ আটকায় দিল্লি পুলিশ। জরিমানা করা হবে বলে জানায়। কিন্তু তাই শুনেই নানা রকম বাহানা শুরু করেন তরুণী। শেষমেশ পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছয়, তাঁকে বিনা জরিমানায় ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় পুলিশ।

নতুন ট্র্যাফিক আইন চালু হওয়ার পরে ইতিমধ্যেই খবরে এসেছে ২৫ হাজার থেকে শুরু করে আড়াই লক্ষ টাকা জরিমানার ঘটনা। কেউ জরিমানা দিতে অস্বীকার করেছেন, কেউ বা রেগে জ্বালিয়ে দিয়েছেন মোটরবাইক। কিন্তু জরিমানা দেবেন না বলে কেউ আত্মহত্যা করার হুমকি দিয়েছেন, এমনটা আগে হয়নি। সেটাই করলেন তরুণী।

শনিবার দক্ষিণ দিল্লির কাশ্মীরি গেটের কাছে পুলিশ পথ আটকায় ওই তরুণীর। স্কুটারে করে অফিসে যাচ্ছিলেন তিনি। পুলিশ জানিয়েছে, মোবাইলে কথা বলছিলেন তিনি। হেলমেটও ঠিক করে পরা ছিল না। এমনকী স্কুচারের নম্বরপ্লেটটাও ছিল ভাঙা। পথ আটকানো মাত্র চিৎকার করতে শুরু করেন তরুণী।

তাতে কাজ না হওয়ায় কাকুতি-মিনতি করেন পুলিশের কাছে। তার পরেও চালান কাটতে থাকে পুলিশ। তখন কেঁদেই ফেলেন তরুণী। পুলিশকে জানান, তাঁর শরীর ভাল লাগছে না। কথা কাটাকাটি বাড়তে থাকে। এর মধ্যেই হঠাৎ নিজের হেলমেট ছুড়ে ফেলে দেন তরুণী। মাকে ফোন করে জানান গোটা ঘটনা।

পুলিশকে জানান, কিছুতেই চালান নেবেন না তিনি। এর পরেও পুলিশ নিজের অবস্থানে অনড় থাকলে, আত্মহত্যা করা হুমকি দেন তিনি। তত ক্ষণে পথচলতিদের ভিড় জমে গেছে ঘটনাস্থলে। যেন লাইভ নাটক দেখছেন সবাই! ২০ মিনিট চলতে থাকে এই নাটক! শেষমেশ অতিষ্ঠ হয়ে তরুণীকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।