সন্তানসম্ভবা নুসরতের বিরুদ্ধে ‘মামলা দায়ের’ স্বামী নিখিলের

কলকাতা, ৮ জুনঃ বিগত কিছুদিন ধরেই নেট দুনিয়ায় ভাইরাল সাংসদ ও অভিনেত্রী নুসরত জাহানের মা হওয়ার খবর। শুক্রবার অভিনেত্রীর ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট দেখে সহজেই ধারণা করা গিয়েছে তিনি গর্ভবতী। তবে কিছুদিন আগেই নিখিল জানান যে তার সাথে কোনরকম সম্পর্কে তিনি থাকতে চান না ।

বেশ কিছুদিন ধরেই জানা যাচ্ছিল সম্পর্কে আছেন নুসরত এবং যশ । অবশেষে নিজেদের সেই সম্পর্ককে শিলমোহর দিয়েছেন অভিনেত্রী। যশের সঙ্গে ডেট করার কথা তিনি স্বীকার করেছেন। এই নিয়ে টলিপাড়া থেকে নেট দুনিয়া সরগরম নুসরতের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরে। ইতিমধ্যেই টলিপাড়ায় গুঞ্জন উঠেছে, নুসরতের মা হওয়ার খবর জানার পরে স্বামী নিখিল অভিনেত্রীর নামে মামলা দায়ের করেছেন।

তবে এই কথা একাবারেই উড়িয়ে দিয়েছেন নুসরতের প্রাক্তন স্বামী নিখিল । সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে নিখিল জানিয়েছেন, এই মামলার সঙ্গে নুসরতের গর্ভবতী হওয়ার কোন সম্পর্ক নেই। তিনি বলেন, ‘যেদিন জানতে পেরেছি নুসরত আমার সঙ্গে থাকতে চায় না। অন্য কারুর সঙ্গে থাকতে চায়, সেদিনই এই মামলা দায়ের করেছি আমি ওর নামে’।

নুসরতের মা হওয়ার খবর শুনে বাকি সবার মতো নিখিলও অবাক হয়েছিলেন। তার কাছে এই বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে নিখিল পিতৃত্ব অস্বীকার করে বলেছিলেন, নুসরতের সঙ্গে বিগত ছয় মাস কোন রকম যোগাযোগ নেই তার। এই বাচ্চা কখনই তার হতে পারে না। বাচ্চা কার সেই বিষয়েও কোন ধারণা নেই নিখিলের।

আর মাত্র ১১ দিনের মাথাতেই নিখিল আর নুসরতের বিয়ের দুই বছর সম্পন্ন হবে। তার মধ্যেই ঘটনা উল্টো দিকে ঘুরে গিয়েছে। ১৯শে জুন ২০১৯ এ তুরস্কে গিয়ে বিবাহ সম্পন্ন করেছিলেন তারা।

সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে ছিল কেবল নুসরতের বিশালবহুল বিয়ের অনুষ্ঠানের ছবি। বিয়ের কিছু মাস পরেই ‘এস ও এস কলকাতা ছবির শুটিংয়ের সময়ে ঘনিষ্ঠ হয় নুসরত এবং যশ। ভেঙে যায় অভিনেত্রীর বৈবাহিক সম্পর্ক। নিখিল স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি নুসরতের সঙ্গে আর থাকতে চাননা।