তবে কি বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন অভিনেতা রুদ্রনীল? জল্পনা তুঙ্গে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : ফেব্রুয়ারি থেকে রাজনীতিতে ফের যোগ দেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন রুদ্রনীল ঘোষ। আর রাতেই পেলেন বিজেপিতে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব।

অভিনেতার সঙ্গে দেখা করলেন বিজেপির যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক শঙ্কুদেব পণ্ডা। জানা গিয়েছে, রুদ্রনীলের সঙ্গে দেখা করে তিনি তাঁকে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন। দলের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়র সঙ্গেও দেখা করার প্রস্তাব দেওয়া হয় অভিনেতাকে।

বুধবার, জন্মদিনের দিন রুদ্রনীল জানান তিনি ফের রাজনীতিতে যোগ দিতে চান। তবে তার আগে পরিস্থিতি বুঝে নেওয়ার জন্য তিনি কিছুটা সময় চাইছেন। তবে রুদ্রনীল যে শাসকদলের একাংশের কার্যকলাপে খুশি নন, তেমন ইঙ্গিতও দেন। এরপর রাতেই তাঁর বাড়ি গিয়ে উপস্থিত হন বিজেপি যুব মোর্চার সাধারণ সম্পাদক শঙ্কুদেব পণ্ডা।

প্রায় ঘণ্টাখানেক তাঁদের মধ্যে কথা হয়। সেখানেই অভিনেতাকে বিজেপিতে আসার আহ্বান জানানো হয়েছে। কৈলাস বিজয়বর্গীয়র সঙ্গে দেখা করার প্রস্তাবও দেওয়া হয় তাঁকে। জানা গিয়েছে রুদ্রনীল প্রস্তাবে রাজিও হয়েছেন। যদিও, বিজেপিতে যোগ দেবেন কিনা তা নিয়ে এখনও কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেননি অভিনেতা।

রুদ্রনীল রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত বহুদিন থেকেই। ছাত্রজীবনেও তিনি বামপন্থী রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। কিন্তু সিঙ্গুর-নন্দীগ্রাম কাণ্ডের সময় তিনি তৃণমূলে যোগ দেন। রাজ্যের বৃত্তিমূলক শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ সংসদের সভাপতি ছিলেন তিনি। কিন্তু ২০১৯ সালের মাঝামাঝি তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি হয় তাঁর। রাজ্যে কাটমানি ইস্যু থেকে সিন্ডিকেট রাজ সহ একাধিক ইস্যু নিয়ে বারবার সরব হন তিনি। শাসকদলের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। সরকারি পদ থেকে সরে যেতে হয় তাঁকে। তারপর প্রায় বছর দেড়েক রাজনীতির সঙ্গে তিনি যুক্ত ছিলেন না। এবার যখন তিনি ফের রাজনীতিতে আসার কথা ঘোষণা করলেন তখন স্বভাবতই নড়েচড়ে বসেছে রাজনৈতিক মহল।