Ad
দক্ষিণ দিনাজপুর

পালিত হল বালুরঘাট দিবস

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ, বালুরঘাট : আজ ১৮ ই আগস্ট ‘বালুরঘাট দিবস’ পালন করা হলো। বালুরঘাট হাই স্কুল মাঠে বিজেপির পক্ষ থেকে ভারতের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। উপস্থিত ছিলেন বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ ড: সুকান্ত মজুমদার, বিজেপি রাজ্য কমিটির সদস্য নীলাঞ্জন রায়, বিজেপি জেলা সাধারণ সম্পাদক বাপি সরকার সহ অন্যান্য কার্যকর্তা গণ।

১৫ ই আগস্ট ভারতের স্বাধীনতা দিবস হলেও স্বাধীনতার তিনদিন পর বালুঘাট স্বাধীন হয় অর্থাৎ ভারতের অন্তর্ভুক্ত হয়। ১৯৪৭ সালের ১৮ ই আগস্ট বালুঘাট বাসী প্রথম স্বাধীনতার স্বাদ পায়। এই দিনটিকে স্মরণ করে এদিন বালুরঘাট হাইস্কুল মাঠে জাতীয় পতাকা তোলা হয় বিজেপির পক্ষ থেকে। পতাকা তোলেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার।

Ad

প্রসঙ্গত,স্যার সিরিল র‍্যাডক্লিফের ঘোষণা অনুসারে ১৯৪৭ সালে ১৪ আগস্ট পাকিস্তানে এবং ১৫ আগস্ট ভারত স্বাধীন হয়েছিল। কিন্তু তখন আজানা আশঙ্কা নেমে এসেছিল বালুরঘাট বাসির কাছে। ১৪ আগস্ট রাতে পাকিস্থানি সৈন্যবাহিনী ও পাকিস্তানি নেতারা বালুরঘাট হাই স্কুলে হাজির হয়। আর ১৫ আগস্ট মহকুমা শাসক পানাউল্লা পাকিস্তানের পতাকা তোলেন। এই সময় বালুরঘাটের মানুষ ও পাকিস্তানি ফৌজের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। সেই সময় স্যার সিরিল র‍্যাডক্লিফ বালুরঘাট, মালদা ও অসমের বেশ কিছু এলাকাকে “নোশনাল এরিয়া” বলে ঘোষণা করেছিলেন। অবশেষে ১৭ আগস্ট বালুরঘাট সহ মোট পাঁচটি থানা ভারতের অন্তরভুক্ত হয়। ১৮ আগস্ট সকালে বালুরঘাটে ভারতীয় জাওয়ানরা পজিশন নেয়। অবশেষে ১৮ আগস্ট রাত ১২ টায় সরকারিভাবে জানিয়ে দেওয়া হয় বালুরঘাট স্বাধীনভারতের অন্তর্ভূক্ত। স্বাধীনতা সংগ্রামী সরোজরঞ্জন চট্টোপাধ্যায় ভারতীয় জাতীয় পতাকা তোলেন।

বিজেপির সাংসদ সুকান্ত মজুমদার জানান ১৮ আগষ্ট অন্য আবেগ বালুরঘাটবাসীর মধ্যে। তবে এনিয়ে দিল্লিতে ডঃ শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জির তৎপরতায় তিনদিন পর বালুরঘাট সহ মালদার বিস্তীর্ণ অঞ্চল ভারতের অন্তর্ভুক্ত হয়।১৯৪৭ সালের ১৮ ই আগস্ট বালুরঘাটে ওড়ে স্বাধীন ভারতের জাতীয় পতাকা। বালুরঘাট বাসী স্বাদ পায় স্বাধীনতার। সেই দিনটি স্মরণে রেখে বিজেপি আজ বালুরঘাট দিবস পালন করছে।

আরও পড়ুন