Ad
দক্ষিণ দিনাজপুর

১৯৪২-এর ১৪ সেপ্টেম্বর ৩ দিনের জন্য স্বাধীন হয় বালুরঘাট, সেই দিনকে স্মরণে রেখে পালিত হল বালুরঘাট দিবস

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

দক্ষিণ দিনাজপুর, ১৪ সেপ্টেম্বরঃ পালিত হল বালুরঘাট দিবস। ১৯৪২ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর বালুরঘাটের ট্রেজারি বিল্ডিং থেকে ব্রিটিশ পতাকা নামিয়ে ভারতের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন স্বধীনতা সংগ্রামীরা। তিন দিন স্বাধীনতার স্বাদ পান বালুরঘাটবাসী। সেই দিনটিকে স্মরণ করে সোমবার বালুরঘাট দিবস পালন করলো বালুরঘাট দিবস উদযাপন কমিটি।

১৯৪২ সালে ভারত ছাড়ো আন্দোলনের ঢেউ আছড়ে পড়ে বালুরঘাটেও। বালুরঘাটের বাসিন্দা স্বাধীনতা সংগ্রামী সরোজ রঞ্জন চট্টোপাধ্যায় সহ অন্যান্য স্বাধীনতা সংগ্রামীদের নেতৃত্বে বালুরঘাট শহরের উপকন্ঠে, ডাঙ্গি গ্রামে হাজার হাজার মানুষ জমায়েত হন আগের দিন রাতে। ১৪ সেপ্টেম্বর তারা বালুরঘাটে এসে শহর অবরুদ্ধ করে দেন। আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় আদালত, পোস্ট অফিস, প্রশাসনিক ভবনে। তৎকালীন প্রশাসনিক ভবন এবং বর্তমানে ট্রেজারি বিল্ডিং থেকে ব্রিটিশ পতাকা নামিয়ে ভারতের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পালিয়ে যান ব্রিটিশ কর্তারা। তিন দিন স্বাধীন থাকার পর ব্রিটিশ সেনা ফিরে এসে পুনরায় দখল নেয় বালুরঘাটের। চলে ধরপাকড়, অত্যাচার।

Ad

সেই দিনটি স্মরণ করে সোমবার পালিত হয় বালুরঘাট দিবস। বালুরঘাট দিবস উদযাপন কমিটির পক্ষ থেকে এদিন সকালে ডাঙ্গী গ্রামের শহীদ বেদীতে মাল্যদান করা হয়। ডাঙ্গিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন জেলা পুলিশ সুপার দেবর্ষি দত্ত।

এরপর বালুরঘাট প্রশাসনিক ভবন চত্বরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা শাসক নিখিল নির্মল। সেখানে শহীদ বেদীতে মাল্যদান করেন জেলাশাসক নিখিল নির্মল।

এদিনের অনুষ্ঠানে বালুরঘাট দিবস উদযাপন কমিটির পক্ষে উপস্থিত ছিলেন পীযুষ কান্তি দেব, শঙ্কর চক্রবর্তী, সুভাষ চাকী, সুশভোন চ্যাটার্জী, বিপ্লব খাঁ সহ বালুরঘাটের বিশিষ্ট মানুষজন।

আরও পড়ুন