‘চাষার ব্যাটা’ থেকে ইসরো প্রধান: কে শিবন সম্পর্কিত অজানা কিছু তথ্য

নয়াদিল্লি: অনেক আশা জাগিয়েও চাঁদের মাটি ছুতে পারেনি ল্যান্ডার বিক্রম৷ সেই ব্যর্থতার জ্বালা থেকে ভেঙে পড়েন ইসরোর বিজ্ঞানীরা৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে ফেলেন ইসরোর প্রধান কে শিবন৷ পিঠ চাপড়ে তাঁকে সাহস জোগান মোদী৷ ইসরো প্রধানের পাশে এসে দাঁড়ায় গোটা দেশ৷ শিবনের প্রতি দেশবাসীর বার্তা, ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে তো কী হয়েছে? ইচ্ছাশক্তি শেষ হয়ে যায়নি৷ চাঁদে যাওয়ার স্বপ্ন একদিন পূরণ হবেই৷

শিবনের স্বপ্ন এবারের মতো সফল না হলেও তিনি অন্তত চাঁদের কাছাকাছি পৌঁছতে পেরেছিলেন৷ তাও প্রথম চেষ্টাতেই৷ তবুও জীবনে অনেক চাওয়া, আশা-আকাঙ্খা প্রথম চেষ্টাতেই পূরণ হয় না৷ সেটা ইসরো প্রধান শিবনের থেকে ভালো কেউ জানে না৷ তাঁরও জীবনে এমন বহু ইচ্ছা অপূর্ণই থেকে গিয়েছে৷ তাই বলে হাল ছাড়েননি৷ অদম্য ইচ্ছাশক্তি ও চেষ্টার বলে সব স্বপ্ন পূরণ করেছেন৷ জেনে নেওয়া যাক তাঁর সম্পর্কিত কিছু অজানা তথ্য৷

১. ৬২ বছরের শিবনকে তামিলনাড়ুর রকেট বিজ্ঞানী বলা হয়৷ ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে নবম প্রধান হিসেবে ইসরোতে যোগ দেন৷

২. তামিলনাড়ুর তারাক্কানভিল্লাই গ্রামে এক কৃষক পরিবারে তাঁর জন্ম৷ ছেলেবেলায় বাবার সঙ্গে আম বাগানে কাজ করতেন৷ পড়াশোনার ফাঁকে সময় পেলেই বাবাকে চাষের কাজে সাহায্য করতেন৷

. পড়াশোনা সরকারি স্কুলে৷ পরিবারের মধ্যে তিনিই ছিলেন প্রথম গ্র্যাজুয়েট৷ তিনি কখনও টিউশন বা কোচিং ক্লাসে যাননি৷ এসটি হিন্দু কলেজ থেকে স্নাতক পাশ করেন৷

৪. পরিবারে আর্থিক সঙ্গতির অভাব ছিল৷ কলেজে ওঠার আগে প্যান্টও ছিল না একটাও৷ ধুতি পড়তেন৷ ১৯৮০ সালে মাদ্রাস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি থেকে থেকে এরোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করেন৷ বেঙ্গালুরু থেকে মাস্টার্স করেন৷ আইআইটি বম্বে থেকে পিএইচডি৷ তার আগে অবশ্য ইসরোতে তাঁর কাজে যোগ দেওয়া হয়ে গিয়েছে৷ ১৯৮২ সালে তিনি ইসরোতে যোগ দেন৷

৫. তিন দশক লম্বা কেরিয়ারে অনেক মহাকাশ গবেষণার প্রোজেক্টের সঙ্গে তিনি জড়িত ছিলেন৷ তিনি বিক্রম সারাভাই স্পেস সেন্টারের ডিরেক্টরও ছিলেন৷

৬. মহাকাশ গবেষণায় অবদানের জন্য তাঁকে অনেক পুরস্কারে সম্মানিত করা হয়৷ ১৯৯৯ সালে পান বিক্রম সারাভাই রিসার্চ অ্যাওয়ার্ড৷ ২০০৭ সালে ইসরো মেরিট অ্যাওয়ার্ড৷

৭. ইসরোর চেয়ারম্যান ছাড়াও তাঁকে ডিপার্টমেন্ট অব স্পেস অ্যান্ড চেয়ার অব দ্য স্পেস কমিশনের সেক্রেটারি পদে নিয়োগ করা হয়৷