Ad
করোনা ভাইরাস

করোনায় ত্রস্ত দেশ, ২৪ ঘণ্টায় ৩ লক্ষ আক্রান্ত, মৃত্যু ২ হাজার ৬২৪ জনের

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : করোনায় ত্রস্ত দেশ। আরও বাড়ল দৈনিক সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে নতুন করে প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষ মানুষ করে করোনা আক্রান্ত হলেন। একদিনে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৬২৪ জনের। রাজ্যে-রাজ্যে করোনার সংক্রমণ ভয়াবহ আকার নিয়েছে। অক্সিজেনের জন্য হাহাকার সর্বত্র।

দেশে করোনার দৈনিক সংক্রমণ প্রতিদিন আগের দিনের রেকর্ড ভেঙে বিদ্যুৎ গতিতে দৌড়োচ্ছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে ৩ লক্ষ ৪৬ হাজার ৭৮৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এরই পাশাপাশি একদিনে দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২ হাজার ৬২৪ জনের। সব মিলিয়ে শনিবার সকাল পর্যন্ত দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১ কোটি ৬৬ লক্ষ ১০ হাজার ৪৮১। দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১ লক্ষ ৮৯ হাজার ৫৪৪। দেশে এই মুহুর্তে করোনা অ্যাক্টিভ কেস ২৫,৫২,৯৪০।

Ad

রাজ্যে-রাজ্যে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। দেশের মধ্যে করোনার সবচেয়ে বেশি সংক্রণণ ছড়িয়েছে মহারাষ্ট্রে। বেলাগাম সংক্রমণ সেরাজ্যে। মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ার উপক্রমণ। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মহারাষ্ট্রে শুক্রবার নতুন করে ৬৬ হাজার ৮৩৬ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। একদিনে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৭৭৩ জনের। রাজ্যে হু হু করে বাড়ছে করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা।

মহারাষ্ট্রে এই মুহূর্তে অ্যাক্টিভ করোনা কেস ৬ লক্ষ ৯১ হাজার ৮৫১। গোটা দেশে মহারাষ্ট্রেই সবচেয়ে বেশি করোনা অ্যাক্টিভ রোগী। অতিমারীর মোকাবিলায় ওষুধ, অক্সিজেন ও অন্য প্রয়োজনীয় চিকিৎসার সরঞ্জামের আকাল রাজ্যে। করোনা মোকাবিলায় রাজ্যে পর্যাপ্ত টিকাও মিলছে না বলে উঠছে অভিযোগ। ইতিমধ্যেই রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক হয়েছে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের। রাজ্যে পর্যাপ্ত পরিমাণে অক্সিজেন সরবরাহের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে আবেদন জানিয়েছেন উদ্ধব ঠাকরে।

মহারাষ্ট্রের পাশাপাশি দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তীসগড়, তামিলনাড়ু, কর্নাটক, পশ্চিমবঙ্গ-সহ একাধিক রাজ্যে করোনার সংক্রমণ বিপজ্জনক আকার নিয়েছে। রাজ্যে-রাজ্যে অক্সিজেনের জন্য হাহাকার। সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালগুলিতে করোনা রোগীদের উপচে পড়া ভিড়। অতিমারী মোকাবিলায় একাধিক রাজ্যে জারি লকডাউন, নাইট কারফিউ। তবুও সংক্রমণে লাগাম পরানো যাচ্ছে না।

আরও পড়ুন