আগামীকাল কেন্দ্রের আনলক-৪ এর নির্দেশিকার পর বাংলার ৭, ১১ আর ১২ তারিখের লকডাউন নিয়ে উঠছে প্রশ্ন

ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘ কয়েকমাস পর আবার চালু হচ্ছে মেট্রো পরিষেবা। আনলক ৪ পর্যায়ে আগামী ৭ সেপ্টেম্বর থেকে পর্যাযক্রমে চলবে মেট্রো রেল।

 এজন্য প্রয়োজনীয় সুরক্ষাবিধি মেনে চলা হবে। শনিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে আনলক ৪-এর গাইডলাইন প্রকাশ করে একথা জানানো হয়েছে।

কিন্তু দিন দুয়েক আগে নবান্ন থেকে সেপ্টেম্বর মাসের ৭,১১ এবং ১২ তারিখে বাংলায় লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন মমতা ব্যানার্জী। কিন্তু গতকালের কেন্দ্রের আনলক-৪ নিয়ে নির্দেশিকা জারি হওয়ার পর এই লকডাউন নিয়ে ধোঁয়াশা দেখা দিয়েছে।

কারণ কেন্দ্রের নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী কোন রাজ্যই নিজের ইচ্ছেমত কন্টেইনমেন্ট জোন বাদ দিয়ে লকডাউন ডাকতে পারবে না। আর যদি ডাকতেই হয়, তাহলে কেন্দ্রের অনুমতি নেওয়া বাধ্যতামূলক।

আরেকদিকে কেন্দ্র এও জানিয়ে দিয়েছে যে, সেপ্টেম্বর মাসের সাত তারিখ দেখে দেশজুড়ে নিয়ম মাফিক মেট্রো চালানো হবে। তাহলে কি এই রাজ্যে ৭,১১ আর ১২ তারিখে লকডাউন হচ্ছে না? এটা নিয়ে উঠছে নানান প্রশ্ন।

জানিয়ে দিই, এই আগস্ট মাসে সাপ্তাহিক লকডাউন চালু করেছিল রাজ্য সরকার। প্রথমে লকডাউনের দিন ক্ষণ ঠিক করার পর চারবার বদলে লকডাউনের দিন কমিয়ে আনা হয়েছে।

বারবার লকডাউনের দিন পাল্টানোয় অস্বস্তিতে পড়েছিল রাজ্যবাসী। আরেকদিকে, বিরোধী দল গুলো বারবার সরকারের তরফ থেকে লকডাউন নিয়ে এহেন ছেলে খেলা করার জন্য তীব্র কটাক্ষও করা হয়েছিল।

কেন্দ্র সরকার আনলক-৪ এর নির্দেশিকা জারি করার আগেই রাজ্য সরকার এরাজ্যে লকডাউনের ঘোষণা করেছে। আর কেন্দ্রের নতুন নিয়ম অনুযায়ী, রাজ্য এভাবে আর ইচ্ছেমত লকডাউন ডাকতে পারবে না।

আরেকদিকে সাধারণ মানুষ ও জানাচ্ছে যে, এরকম লকডাউন ডাকার থেকে না ডাকা ভালো। তাঁদের মতে, লকডাউন যদি টানা ডাকা হয় তাহলে একটা সুফল দেখা দিতে পারে।

কিন্তু একদিন লকডাউন আবার ছয়দিন সব খোলা এতে করোনার চেন ভাঙা কোনমতেই সম্ভব না। আর সেই কারণে রাজ্যবাসীও চাইছে এই লকডাউন যেন প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।