মাকে যেমন বলি আমায় মেরো না, তেমনি করোনা কে বলতে হবে তুমি আমায় ধোরো না! হাস্যকর ভঙ্গিতে নেটদুনিয়ায় ভাইরাল এক পুরোহিত

    ইউবিজি নিউজ ডেস্ক : বর্তমানের যুগে আট থেকে আশি সবাই সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে থাকে। কাজের ফাঁকে সময় অতিবাহিত করার জন্য সবাই সোশ্যাল মিডিয়া জগতে বিচরণ করে বিভিন্ন হাসির ভিডিও বা শিক্ষামূলক ভিডিও দেখে থাকে। নেটিজেনরা সোশ্যাল মিডিয়াতে এসে তাদের পছন্দের ভিডিওগুলিকে প্রচুর পরিমাণে শেয়ার করে যা ভাইরাল করে তোলে ভিডিওটিকে।

    এই করোনা পরিস্থিতিতে প্রত্যেকেই বাড়িতে থেকে সময়যাপন করার পথ খুঁজে পাচ্ছে না। তবে ফেসবুকের পাতায় ভাইরাল ভিডিও দেখতে দেখতে অনেকেই সময় কাটিয়ে দিচ্ছে। এরকমই সম্প্রতি ভাইরাল ভিডিও তালিকায় শিরোনামে উঠে এসেছে একটি হাসির ভিডিও।

    করোনাকালে অতিষ্ঠ গোটা দেশ তথা রাজ্যবাসী। আগামীকাল থেকে রাজ্য সরকার কার্যত লকডাউন করে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে সাংবাদিকরা বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে ঘুরে মানুষের সাথে কথা বলছে। কিন্তু তার মাঝেই আজ রানাঘাট শহরে এক পুরোহিতের সাথে কথা বলেছে একদল সাংবাদিক।

    পুরোহিত গেরুয়া বস্ত্র পরে মুখের মাস্কটিকে গলায় নামিয়ে চলাফেরা করছিলেন। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বেশ রসিক কন্ঠে বলেছেন, “করোনা তুমি আমায় ধোরো না! এই কথাটা কেউ বলতে চায় না। সবাই বলে ইঞ্জেকশন নিন, ওষুধ নিন। কিন্তু মাকে যদি আমি বলি আমায় মেরো না, সে কি মারবে।” ওই পুরোহিতের কথাটির বলার ভাঁজ দেখে হাসি চেপে রাখতে পারেনি আপামর নেট জনতা।

    আবার ভিডিওর শেষ জায়গায় এসে ওই পুরোহিত বলেছেন যে তিনি এরকম ভাবেই গোটা লকডাউন কাটিয়ে দিতে চাই। তার বিশ্বাস তার কাছে করোনা আসবে না। একদম শেষে সে কিংবদন্তি গায়ক কিশোর কুমারের “এই তো জীবন” গানের এক পংক্তি তুলে এনেছেন। এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট হওয়ার সাথে সাথেই ব্যাপক ভাইরাল হয়ে যায়। অনেক নেটিজেন ভিডিওটি দেখে পুরোহিতের কৌতুকতার প্রশংসা করেছেন এবং তার বলার ভঙ্গিতে হেসে লুটোপুটি খেয়েছেন। আবার অনেক নেটিজেন ভিডিওর কমেন্টে এসে ওই পুরোহিতকে গলা থেকে তুলে মাস্কটি নাকে পরার পরামর্শ দিয়েছেন। এক কথায় বলতে গেলে ভিডিওটি পোস্ট করার সাথে সাথে সোশ্যাল মিডিয়া দুনিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল হয়ে গিয়েছে ওই পুরোহিতের সাক্ষাৎকারের ভিডিও।