Ad
কোচবিহার

কে হবেন কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি, নেতৃত্বে ফিরছেন রবীন্দ্রনাথ ? বর্তমান সভাপতির সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্ট নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

UBG NEWS: “ আজ এক বছর পূর্ণ হল। হ্যাঁ এটা আমার পৈতৃক সম্পত্তি নয় যে আজীবন থাকবে। তবে কাজ আজীবন করব। যতদিন সইতে পারব। ইঁদুর দৌড়ে আমি নেই। Slow but steady wins the race.”

শুক্রবার রাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই পোস্ট করেন বর্তমান কোচবিহার জেলার তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি পার্থ প্রতিম রায়। এরপরই গুঞ্জন শুরু হয় সাধারণ মানুষের মধ্যে।

Ad

সূত্রের খবর, তাঁর পদে পূর্বসূরি রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে ফিরিয়ে আনছে দল ৷ তবে কি তার জেরেই ক্ষোভ জমেছে তৃণমূলের এই তরুণ নেতার মনে ? এর কোনও উত্তরই দেননি পার্থপ্রতিম ৷ তবে তাতে জল্পনা বাড়ছে বই কমছে কই ?

তরুণ নেতা পার্থপ্রতিম রায় কি থাকছেন না জেলা সভাপতি পদে ? এক বছর আগে তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে কোচবিহার জেলার সভাপতি পদে নিযুক্ত করা হয়েছিল পার্থবাবুকে।

এরপর ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে কোচবিহার জেলার গুরু দায়িত্ব আসে তার ওপর। কিন্তু বিধানসভা নির্বাচনের পর দেখা যায় কোচবিহার জেলার ৯ টি আসনের মধ্যে ৭ টি আসনে পরাজিত হয় ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস। এরপর থেকে রাজনৈতিক মহলে শোনা যাচ্ছিল গুঞ্জন আদৌ কি কোচবিহার জেলার তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি পার্থ প্রতিম রায় থাকবেন ? এমন গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল তৃণমূল কংগ্রেসের অভ্যন্তরেও।

তবে গতকাল পার্থবাবু তার নিজের ফেসবুক পেজে পোস্টটি করায় সভাপতি পদ নিয়ে নতুন করে জল্পনা শুরু হয়েছে কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী ও নেতাদের মধ্যে। সভাপতি পদ আদৌ কি তার দখলে থাকবে ? যদি তিনি এই পদ হারান তাহলে কাকেই বা কোচবিহার তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি পদটি দেওয়া হবে।

গতকাল রাত থেকেই রাজনৈতিক মহলের ধারণা লোকসভা ভোটে ভরাডুবির পর কোচবিহার জেলা সভাপতি পদ দেওয়া হয়েছিল বিনয় কৃষ্ণ বর্মনকে। তাহলে কি তিনি পুনরায় সেই পদ অলংকৃত করবেন। নাকি তৃণমূল কংগ্রেসের দুঃসময়ের সাথী বর্ষিয়ান নেতা রবি ঘোষকেই দেওয়া হবে সেই পদ।

অপরদিকে অর্ঘ্য রায় প্রধানকে বিধানসভা নির্বাচনে টিকিট দেওয়া হয়নি। তাহলে কি তিনি পাবেন এই সভাপতি পদটি। জল্পনা তুঙ্গে রয়েছে বর্তমান কোচবিহার রাজনীতিতে কে হবেন তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি। পার্থপ্রতিম রায়ের ফেসবুক পোস্ট থেকে অনেকটাই আন্দাজ করা যায় যে তিনি আর থাকছেন না কোচবিহার জেলা সভাপতি এমনটাই মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তবে কি কোন নতুন মুখ অপেক্ষা করছে জেলা সভাপতি পদের জন্য।

কোচবিহারে তৃণমূল কংগ্রেসের বর্তমান এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে কে ধরবে দলের কান্ডারী। কাকেই বা বাছা হবে তৃণমূল কংগ্রেস কে কোচবিহার জেলায় সেই পূর্বের স্বমহিমায় ফিরে আনার সৈনিক হিসেবে।

আরও পড়ুন