নাকা তল্লাশি চলাকালীন কোচবিহারে অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্রসহ গ্রেপ্তার ২, চাঞ্চল্য জেলা জুড়ে

ইউবিজি নিউজ, কোচবিহার : শনিবার ভোররাতে কোচবিহার জেলার তুফানগঞ্জ মহকুমা টোলপ্লাজা সংলগ্ন এলাকায় রুটিন নাকা তল্লাশি চলাকালীন একটি মারুতি ভ্যান তল্লাশি করে আগ্নেয়াস্ত্রসহ দুইজনকে গ্রেফতার করল তুফানগঞ্জ থানার পুলিশ।

ধৃতরা হলেন ষষ্ঠী বর্মন (২১) অশোক সাহা (৫৮)। এরমধ্যে ষষ্ঠী বর্মন এর বাড়ি দিনহাটা মহকুমার ভেটাগুড়ি এলাকায় এবং অশোক সাহার বাড়ি ফালাকাটায়।

আগ্নেয়াস্ত্র-গুলি অসম রজ্যে বিক্রির উদ্যেশ্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলেন পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছে। তাদের থেকে উদ্ধার হয় একটি নাইন এমএম পিস্তল এবং একটি রিভলবার এবং মোট ৬ রাউন্ড গুলি। সাংবাদিক বৈঠকে এই কথা জানান কোচবিহার জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লালটু হালদার।

রবিবার তাদের তুফানগঞ্জ মহকুমা আদালতে তোলা হবে এবং ৭ দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন করা হবে বলেও জানান তিনি।

কয়েকদিন আগেও দিনহাটা মহকুমা থেকেও বন্দুক উদ্ধার হয়েছিল। বেশ কয়েকদিন থেকে দিনহাটা এবং তুফানগঞ্জ এর বেশ কিছু এলাকায় রাজনৈতিক উত্তেজনার ফলে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠেছে।

দিনহাটা এক ব্যবসায়ী গুরুতর আহত হয়েছেন।

তুফানগঞ্জ এর একাধিক এলাকায় গুলির আওয়াজ করা হয়েছে বলে অভিযোগ।

এইসবের নিরিখে ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে নাকা তল্লাশি সহ অস্ত্র উদ্ধার এর ক্ষেত্রে বিশেষ জোর দিচ্ছে কোচবিহার জেলা পুলিশ।

লালটু হালদার আরও জানান, এই অস্ত্র কোনো রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল কি না তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। একই সাথে এই অস্ত্র কোথা থেকে আমদানি হচ্ছে তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বলা বাহুল্য, সম্প্রতি বেশ কয়েকটি ঘটনায় কোচবিহারের রাজনৈতিক উত্তেজনা তুঙ্গে উঠেছে। এর সাথে সাথে বৃদ্ধি পেয়েছে বন্দুক বোমের সংখ্যা। প্রায় প্রতিটি ঘটনায় বোমাবাজি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এর বিরুদ্ধে লাগাতার ব্যবস্থা গ্রহণের পথে নেমেছে পুলিশ।

প্রায় প্রতিটি নাকা চেকিং পয়েন্টে বিশেষ পুলিশ দল সংক্রিয় রয়েছে।

একই সাথে এই মুহূর্তে পুলিশের তরফে বিশেষ কিছু জানানো না হলেও বিধানসভা নির্বাচনে কোচবিহার জেলা সন্ত্রাস কবলিত হতে পারে তা মনে করছে সাধারণ মানুষ।