Ad
কোচবিহার

কোচবিহারে আক্রান্ত হওয়ার পর নিখোঁজ হয়ে গেলেন তৃণমূল নেতা, ঘটনাস্থলে আইসির নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

মাথাভাঙ্গাঃ আক্রান্ত হওয়ার পর কার্যত নিখোঁজ হয়ে গেলেন এক তৃণমূল নেতা। মাথাভাঙ্গার ১ নম্বর ব্লকের কুর্শামারি এলাকার ওই তৃণমূল নেতার নাম জুল জালাল মিয়াঁ।

আজ বিকেল ৩ টা নাগাদ কোচবিহার থেকে বাড়িতে ফেরার সময় মাথাভাঙ্গার কুর্শামারি এলাকায় রাস্তায় রাখা পুলিশের ব্যারিকেট দিয়ে জুল জুলাল মিয়াঁর গাড়ি আটকে মারধোর করা হয় বলে অভিযোগ। ভাঙচুর করা হয় গাড়িটিকেও।

Ad

ওই ঘটনার খবর পেয়ে মাথাভাঙ্গা থানার আইসি বিনোদ গজমিরের নেতৃত্বে বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে গেলে সেখানে জুল জালাল মিয়াঁ, তাঁর গাড়ির চালক কিংবা কোন দুষ্কৃতিকে দেখতে পান নি পুলিশ। এরপরেই পুলিশ মাথাভাঙ্গার বিভিন্ন নার্সিং হোম ও হাসপাতাল সহ বেশ কিছু জায়গায় তল্লাশি শুরু করেছে। কিন্তু এদিন সন্ধ্যা পর্যন্ত তাঁর খোঁজ পাওয়া যায়নি।

পুলিশ ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে এবং জুল জালাল বাবুর খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। তিনি কোথায় আছেন, কি অবস্থায় আছেন, গোটা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছেন বলে জানিয়েছেন আইসি বিনোদ গজলের।

এক সময় কুর্শামারি এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসের দাপুটে নেতা ছিলেন স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান জুল জালাল মিয়াঁ। বর্তমানে তিনি কুর্শামারি গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য। দলের গোষ্ঠী কোন্দলে জুল জালাল মিয়াঁকে জরিয়ে পড়তেও দেখা গিয়েছিল। তাঁর উপড়ে এই হামলার পিছনে গোষ্ঠী কোন্দল বা অন্য কোন কারণ রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

আরও পড়ুন