Ad
কোচবিহার

রাতের অন্ধকারে বিজেপি কর্মীকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধোর করে পা ভেঙ্গে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

দিনহাটা : ফের বিজেপি কর্মীকে মারধর করে পা ভেঙ্গে দেওয়ার অভিযোগ উঠলো শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে দিনহাটা বিধানসভা ২নং ব্লকের বিড়ির হাট ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের বাসন্তীর হাট এলাকায়।
আহত ওই বিজেপি কর্মীর নাম প্রিয়তোষ মন্ডল। গরুত্বর আহত বিজেপি কর্মী বর্তমানে দিনহাটা হাসপাতালে চিকিৎসাধিন।

শনিবার সকালে ওই এলাকায় বিজেপি কর্মীর জন্য প্রচারে গেলে শাসক দলের বাঁধার সমূখীন হন কোচবিহার দক্ষিণ বিধান সভার বিজেপি বিধায়ক নিখিল রঞ্জন দে ও অন্যান্য বিজেপি কর্মীরা।

Ad

শনিবার রাতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিশীথ প্রামাণিকের বাড়ি যাওয়ার পথে বাজার সংলগ্ন এলাকায় তৃণমূল কংগ্রেসের দুষ্কৃতী বাহিনী তাকে আটক করে পার্টি নিয়ে গিয়ে বেধড়ক মারধর করে। এর ফলে ওই বিজেপি কর্মীর হাতে পায়ে এবং মাথায় গুরুতর ভাবে চোট লাগে। এদিকে এ ঘটনার খবর পেয়ে দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে ছুটে যান দিনহাটা বিধানসভা উপনির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী অশোক মন্ডল সহ বিজেপি নেতৃত্বরা। এই ঘটনা প্রসঙ্গে দিনহাটা বিধানসভা উপনির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী অশোক মন্ডল বলেন, নির্বাচনের আগে গোটা দিনহাটা জুড়ে সন্ত্রাস সৃষ্টি করতে চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস। এদিন সকালে দলীয় প্রার্থী সমর্থনের বাসন্তীর হাট বাজারে প্রচার চালান প্রিয়তোষ মন্ডল নামে ওই বিজেপি কর্মীর। সেখানে বিধায়কদের উপস্থিতিতে তিনি তাদের সাথে সহযোগিতা করেন প্রচারে এর জেরেই এদিন তাকে তৃণমূলের দুষ্কৃতী বাহিনী মারধর করে।

যদিও এই কথা অস্বীকার করেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী উদয়ন গুহ। তিনি বলেন, আমার কাছে এখনো এমন কোনো খবর আসে নি। আর এখন পারিবারিক অশান্তি বা কোনো কিছু হলেই তার সাথে রাজনীতি জড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। তবে এর সাথে কোনো ভাবেই তৃণমূলের যোগ নেই।

আরও পড়ুন