কোচবিহার জেলা শাসকের দপ্তরে বিক্ষোভ দেখালো জেলা শ্রমজীবী মহিলা সমন্বয় কমিটি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কোচবিহার :দেশ ও রাজ্যের সরকার শ্রমজীবী মহিলাদের স্বার্থ রক্ষায় ব্যর্থ। এই পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক নারী দিবসকে সামনে রেখে মহিলাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে শুক্রবার সি আই টি ইউ এর নেতৃত্বে কোচবিহার শহরে মিছিল এবং ১০দফা দাবিতে কোচবিহার জেলা শাসকের দপ্তরে বিক্ষোভ ও জেলা শাসককে ডেপুটেশন দিল কোচবিহার জেলা শ্রমজীবী মহিলা সমন্বয় কমিটি।

এদিন বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে দুপুর থেকেই কোচবিহার শহরের সুনীতি রোডের পার্শ্ববর্তী ব্রাহ্ম মন্দির সংলগ্ন এলাকায় সমবেত হতে শুরু করেন জেলার শ্রমজীবী মহিলারা। এখানে বর্তমান প্রেক্ষাপটে আন্তর্জাতিক নারী দিবসের তাৎপর্য নিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য পেশ করেন সিআইটি ইউ এর কোচবিহার জেলা সভাপতি তারিণী রায়, শ্রমজীবী মহিলা নেত্রী কাজল দে প্রমূখ।

এরপর এখান থেকে এই শ্রমজীবী মহিলাদের এক বিশাল মিছিল কোচবিহার শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা পরিক্রমা করার পর এসে পৌঁছায় জেলাশাসকের দপ্তরে। এখানে সংশ্লিষ্ট দাবি সমূহের ভিত্তিতে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন তারা। পরবর্তীতে সংগঠনের নেত্রীরা ১০দফা দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি তুলে দেন জেলা শাসকের হাতে।

এদিনের এই কর্মসূচির নেতৃত্ব দেন কোচবিহার জেলার শ্রমজীবী মহিলা সমন্বয় কমিটির নেতৃত্ব দেন শিপ্রা গুপ্ত চৌধুরী, কাজল দে, রবিজা বিবি,রীতা রায় প্রমূখ।

এদিন তারা বলেন, নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন জাতীয় নাগরিক পঞ্জি করন এবং জাতীয় সংখ্যা পঞ্জিকরণ অবিলম্বে বাতিল করে সংবিধান রক্ষা করা, মহিলাদের বিনা মজুরির শ্রমদানকে স্বীকৃতি প্রদান শ্রমজীবী মহিলাদের ন্যূনতম মজুরি মাসিক ২১হাজার টাকা সুনিশ্চিতিকরণ।

বিভিন্ন প্রকল্পের কর্মীদের যথাযথভাবে কর্মীটর মর্যাদা দেওয়া, রাতে কাজ করা মহিলাদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করা, সমাজকল্যাণ মূলক কোন প্রকল্পকে বেসরকারিকরণের সরকারি উদ্যোগ অবিলম্বে বন্ধ করা সহ ১০দফা দাবিতে ডেপুটেশন দেওয়া হয়েছে জেলাশাসককে। এই দাবি পূরণ না হলে আগামী দিনে আরও বৃহত্তর আন্দোলনের পথে হাঁটবেন তারা বলে এদিন জানান।