ভোটের প্রচারে উস্কানিমূলক বক্তব্য রাখার অভিযোগে নাটাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষের বিরুদ্ধে কোচবিহার কোতোয়ালি থানায় অভিযোগ দায়ের বিজেপির

কোচবিহার, ৯ এপ্রিলঃ নির্বাচন বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলে নাটাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী রবীন্দ্রনাথ ঘোষকে বাড়িতে ক্লোজ করার দাবি জানিয়ে কমিশনের দ্বারস্থ হল বিজেপি।

আজ কোচবিহার কোতোয়ালি থানায় নির্বাচন বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলে রবীন্দ্রনাথ বাবুর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ জানান বিজেপি নাটাবাড়ি কেন্দ্রের প্রার্থী মিহির গোস্বামী ও বিজেপি নেতা সঞ্জয় চক্রবর্তী। পরে তাঁরা দুজনেই কোচবিহার প্রেস ক্লাবে হাজির হয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেন। সেখানেই তাঁরা নির্বাচন কমিশন যাতে ভোটের দিন রবীন্দ্রনাথ বাবুকে তাঁর নিজের বাড়িতে ক্লোজ করে রাখে, তাঁর দাবি তোলেন।

বিজেপি নেতা সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, “রবীন্দ্রনাথ বাবু যেভাবে সংবাদ মাধ্যমে ভোটারদের উস্কানি মূলক কথা বলছেন, তাতে আগামীকাল শান্তিপূর্ণ ভোট হওয়া সম্ভব নয়, তাই নির্বাচন কমিশনের কাছে তাঁকে বাড়িতে ক্লোজ করার দাবি জানাচ্ছি।“ নাটাবাড়ি কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী মিহির গোস্বামী বলেন, “এর আগেও বিভিন্ন নির্বাচনে তাঁকে দেখা গিয়েছে বুথে বুথে গিয়ে ভোট কর্মীদের ধমকাচ্ছেন, ওনার অভ্যাসেই এটা রয়েছে। এর আগে এক ব্যাঙ্ক কর্মীকেও অফিসের ভিতরে ঢুকে তিনি মারতে গিয়েছিলেন।“

অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেন, “ ভোটে হেরে যাচ্ছেন বুঝতে পেরে বিভিন্ন অভিযোগ করছেন বিজেপি নেতারা।মিহির বাবুর উস্কানিতেই চারদিকে হিংসা ছড়াচ্ছে। গতকাল আমাদের এক প্রার্থীকে নৃশংস ভাবে খুন করার চেষ্টা হয়েছে। তাই তাঁকেও গ্রেপ্তার করার দাবি জানাচ্ছি আমি।“

রাত পোহালেই ভোট। ইতিমধ্যেই ভোট কর্মীরা বুথে বুথে পৌঁছে গিয়েছেন। কিন্তু এখনও কোচবিহারে রাজনৈতিক নেতানেত্রীদের বাকযুদ্ধ বন্ধ হয়ে যায় নি। আগামী কাল যাতে অশান্তি না ছড়ায়, তার জন্য ব্যাপক নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে নির্বাচন কমিশন। তার পরেও কোন অশান্তির সৃষ্টি হয় কিনা, সেদিকেই নজর থাকবে আমাদের।