শুভেন্দু অধিকারীর পোস্টার “আমরা দাদার অনুগামী” কে নিয়ে জল্পনা মাথাভাঙার কুর্শামারী বাজারে

UBG NEWS, মাথাভাঙ্গাঃ এবারে মাথাভাঙায় তৃণমূল কার্যালয় সহ বাজার সংলগ্ন এলাকায় শুভেন্দু অধিকারীর ছবি সহ পোস্টার। এবং সেই পোস্টারে লেখা রয়েছে “আমরা দাদার অনুগামী”। শুক্রবার সকালে মাথাভাঙার কুর্শামারি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় এই ব্যানার নজরে আসতেই রাজনৈতিক মহলে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। তবে কে বা কারা ব্যানার লাগিয়েছে তা স্পষ্ট নয় এখনও পর্যন্ত।

সাম্প্রতি, বেশ কিছুদিন থাকে তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে শুভেন্দু অধিকারীর দূরত্ব বেড়েই চলেছে। আর এনিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক জল্পনা। কারা এই পোস্টটার ঝুলিয়ে দিয়েছে ওই পার্টি অফিসে কিংবা বাজারে। এ নিয়ে প্রশ্ন চিহ্ন দেখা দিয়েছে।

তবে যাই হোক একদিকে শুভেন্দু অধিকারী অপরদিকে মিহির গোস্বামী। দুজনের নাম এখন জেলার সর্বত্র আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে দাঁড়িয়েছে। তারমধ্যে এই পোস্টটার অনেকটা অন্য কথা বলছে বলে রাজনৈতিক মহলের ধারণা।

এ প্রসঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের মাথাভাঙ্গার ১ নং ব্লকের সভাপতি মহেন্দ্র নাথ বর্মন বলেন, এ ধরনের পোস্টার এর আগে আমাদের  নজরে আসেনি, তাছাড়া এ বিষয়ে আমি কিছু জানিনা।

এই পোস্টারের বিষয়ে শীতলকুচি বিধায়ক তথা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা হিতেন বর্মন জানান, কারা এই পোস্টার লাগিয়েছে, তারা দলের সক্রিয় সদস্য কিনা সমস্ত বিষয় খোঁজ না নিয়ে এখনই কিছু বলা যাবে না।

কুশামারি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান তথা তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা জুল জেলাল মিয়া বলেন, শুভেন্দু অধিকারী আমাদের দলের একজন নেতা, তাছাড়া তিনি রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ একজন মন্ত্রী, তার অনুগামী বলে কোন পোস্টার যদি কেউ ঝুলিয়ে থাকে তবে সেটা দোষের কিছু নয়।

এদিন এবিষয়ে তিনি আরও বলেন,  অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, রবি ঘোষ, পার্থপ্রতিম রায়ের ছবি  যদি কেউ কোনো দলীয় কার্যালয়ে লাগায় সেটাও দোষের কিছু নয়। কারন তারা তো আমাদেরই দলের নেতা। তাছাড়া শুভেন্দু অধিকারী তো এখনো দল ত্যাগ করেনি। তাই তার পোস্টার কে ঘিরে এত মাতামাতির কোন প্রয়োজন আছে বলে আমার মনে হয় না।