Ad
কোচবিহার

কোচবিহারের স্বঘোষিত গ্রেটার মহারাজ অনন্ত বর্মনের বাড়িতে রাতভর পুলিশি তল্লাশি

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ, কোচবিহার : গ্রেটার কোচবিহারের নেতা তথা স্বঘোষিত কোচবিহারের মহারাজ আসাম নিবাসী অনন্ত বর্মন এর বাড়িতে রাতভর তল্লাশি চালালো কোচবিহার জেলা পুলিশ।

তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। যার মধ্যে অন্যতম মামলা হল সরকারি জমি বাজেয়াপ্ত করা। এছাড়াও একাধিক জালিয়াতির মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

Ad

অনন্ত মহারাজ বিজেপি সমর্থিত, তাই ইচ্ছাকৃতভাবে পুলিশ লেলিয়ে দিয়ে এই তল্লাশি চালানো হয়েছে বলে কটাক্ষ বিজেপির।

গত রবিবার থেকে অনন্ত মহারাজ কে নিয়ে রীতিমত রাজ্য রাজনীতি তোলপাড়। ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজবংশী সমর্থন ও ভোট ব্যাংক কে হাতের পাশে রাখতে অনন্ত মহারাজ কে গুটি হিসেবে ব্যবহার করতে চেয়েছিল শাসক দল তৃণমূল।

 এই বিষয়ে অনন্ত মহারাজের সাথে জেলা তথা রাজ্য তৃণমূল কংগ্রেসের একাধিক নেতৃত্তের আলোচনা হয়েছে। এই খবর প্রচারে আসতেই নড়েচড়ে বসেছিল গেরুয়া শিবির।

সূত্রের মাধ্যমে জানা গেছে সোমবার রাতেই অনন্ত বর্মন আসাম সীমান্ত পেরিয়ে ধুবরি থেকে চিরাং হয়ে কোন এক অজানায় চলে গেছেন।

 তার সাথে বিজেপির বেশ কয়েকজন নেতৃত্ব ও একজন নেত্রীও রয়েছেন।গেরুয়া শিবিরে তাকে ধরে রাখার জন্যে ইতিমধ্যেই ময়দানে নেমেছেন কোচবিহারের সাংসদ নিশীথ প্রামানিক এবং আসাম এর স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব কর্মা।

সুতরাং এই মুহূর্তে অনন্ত মহারাজ কে যে তৃণমূল শিবিরে দেখার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিল তৃণমূল রাজ্য নেতৃত্ব সেগুরে বালি।

সোমবার রাত থেকে অনন্ত মহারাজের কোচবিহার ২ নম্বর ব্লকের বড়গিলায় অবস্থিত প্রাসাদসম রাজবাড়ীতে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। সারারাত ধরে মঙ্গলবার সকাল দুপুর পর্যন্ত দফায় দফায় তল্লাশি চালানো হয়।

সেই রাজপ্রাসাদ থেকে একটি বহু মূল্যবান গাড়ি এবং কয়েকজন গ্রেটার সমর্থককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। একই সঙ্গে প্রচুর বেআইনি জিনিসপত্র সেই বাড়ি থেকে পাওয়া গেছে। অনুমান রাজ্য সীমান্ত অতিক্রম করার সঙ্গে সঙ্গেই গ্রেফতার হতে পারেন কোচবিহারের স্বঘোষিত অনন্ত মহারাজ।

এই প্রসঙ্গে গ্রেটার কোচবিহার পিপলস অ্যাসোসিয়েশনের নেতা তথা রাজবংশী ভাষা একাডেমির চেয়ারম্যান বংশী বদন বর্মন বলেন, ভেক ধরে রাজা হওয়া যায়না, রাজা হওয়ার জন্য সমর্থন প্রয়োজন হয়।

কোচবিহার জেলা সার্বভৌমত্বের। আইন কোন পথে চলবে তা আইনি ঠিক করুক। যদি বেআইনি কাজকর্মের সাথে কেউ জড়িত থাকে তিনি অবশ্যই শাস্তি পাবেন।

আরও পড়ুন