কোচবিহার

ট্রেন দুর্ঘটনায় মৃত মাথাভাঙার লতাপাতার শ্রমিক পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করলেন পার্থ প্রতিম রায়,পরেশ চন্দ্র অধিকারী সহ তৃনমূল নেতৃত্ব

১৫ই জানুয়ারী,অভিষেক দে, ঘোকসাডাঙ্গা : ময়নাগুড়ির মর্মান্তিক ট্রেন দুর্ঘটনায় মৃত রঞ্জিত বর্মনের বাড়িতে সমবেদনা জানাতে আসেন এনবিএসটিসির চেয়ারম্যান পার্থ প্রতিম রায়, প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারী,কোচবিহার জেলা পরিষদের সভাধিপতি উমাকান্ত বর্মন,সহ জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের যুব সভাপতি কমলেশ অধিকারী।

জানাযায় শনিবার দুপুর ২ নাগাদ তারা মাথাভাঙা ২ নং ব্লকের গুমানিরহাট রেলস্টেশন সংলগ্ন এলাকায় মৃত রঞ্জিত বর্মনের বাড়িতে হাজির হন।মৃত রঞ্জিত বর্মনের পরিবারের সাথে কথাবার্তা বলেন এবং পাশে থাকার আশ্বাস দেন।জানা গিয়েছে, রঞ্জিত বর্মন জয়পুরে রাজমিস্ত্রির কাজ করতো।প্রায় ৬ দিন আগে তাঁর কন্যা সন্তান নিমুনিয়ায় রোগাক্রান্ত হয়ে মারা যায়।

খবর শুনে বিকানের গৌহাটি এক্সপ্রেস চেপে বাড়ি ফিরছিলেন। ময়নাগুড়ির দোহমনিতে ট্রেনটি দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। সেই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় তার।শুক্রবার সন্ধ্যায় তার মরদেহ বাড়িতে নিয়ে আসা হয়।

পরিবারে নেমে আসে শোকের ছায়া।শনিবার সেই শোকগ্রস্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাতে বাড়িতে হাজির হন এন বি এস টি সির চেয়ারম্যান পার্থ প্রতিম রায়, কোচবিহার জেলা পরিষদের সভাধিপতি উমাকান্ত বর্মন, কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের যুব সভাপতি কমলেশ অধিকারী সহ অন্যান্যরা।

Ad

এইদিন শ্রমিক পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলে এন বি এস টি সির চেয়ারম্যান পার্থ প্রতিম রায় বলেন আমরা সমব্যথীত হয়েই এসেছি, এটি অত্যন্ত মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। আমরা সকলের সাথে কথা বলে পরিবারটিকে কোনরকম সহযোগিতা করা যায় কিনা দেখছি।

[ লেটেস্ট খবর এবং আপডেট জানার জন্য ফলো করুন ইউবিজি নিউজ ফেসবুক পেজ । ব্রেকিং নিউজ এবং ডেইলি খবরের আপডেটে পেতে যুক্ত হোন হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে  ]