Ad
কোচবিহার

রাজার শহর কোচবিহারে যানজটে নাজেহাল সাধারণ মানুষ, উদাসিন প্রশাসন

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

কোচবিহার:: রাজ ঐতিহ্যবাহী কোচবিহার শহর যানজট সমস্যা ক্রমে বেড়েই চলেছে দিনের পর দিন। শহরের বিভিন্ন অংশে প্রবল যানজট তৈরি হচ্ছে নিত্যদিন। সেই কারণেই, সাধারণ মানুষদের হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে দিনের পর দিন। সম্প্রতি শহরের বিভিন্ন অংশে ট্রাফিক সিগনাল ব্যবস্থা লাগানো হয়েছে তবুও সমাধান হচ্ছে না যানজটের।

শহরের বিভিন্ন ব্যস্ত জায়গাগুলোর পরিস্থিতি দেখলে বিস্মিত হতে হয়। ট্রাফিক সিগন্যালে ট্রাফিক গার্ড থাকলেও ট্রাফিক সামাল দিতে তাদের কোন ভূমিকা নেই,এমনটাই অভিযোগ সাধারণ মানুষদের। কোচবিহারের হরিশপাল চৌপথিতে সবুজ বাতির সিগন্যালে সমস্ত যানবাহন দাড়িয়ে থাকতে বাধ্য হচ্ছে এবং লাল সিগনালে যানবাহন চলাচল করছে। এমন দৃশ্য প্রায়ই শহরের সমস্ত অংশের ছবি। এই সমস্যা সমাধানে ট্রাফিক কন্ট্রোল বিভাগের কোন স্বতস্ফূর্ত অভিব্যক্তি চোখে পড়ছে না।

Ad

এছাড়া, শহরের বিভিন্ন অংশে টোটো বা ইলেকট্রিক রিক্সা চলাচল বন্ধ থাকলেও অনেক চালকেরা স্থানীয় ট্রাফিক গার্ডদের চোখে ফাকি দিয়ে ঢুকে যাচ্ছে ।ফলে সমস্যা হচ্ছে সাধারণ মানুষদের।পথ চলতি এক ব্যক্তি জানান শহরের বিভিন্ন অংশে টোটো এবং ই-রিক্সার কারণে যানজট সমস্যা এতটাই বেড়ে গেছে যে অফিস টাইমে অফিস যেতে গিয়ে যানজটে আটকে পরে অনেকটাই দেরি হয়ে যাচ্ছে অফিস পৌঁছতে। এছাড়া, বিভিন্ন ট্রাফিক সিগন্যালে ট্রাফিক গার্ড এর উদ্দেশ্যে সিভিক ভোলিন্টিয়ার দের নিযুক্ত করা থাকলেও তারা মূলত রাস্তার একপাশে দাড়িয়ে নির্বাক দর্শকের ভূমিকা পালন করা ছাড়া আর কোন কিছুই করেনা।

এই সমস্ত বিষয় নিয়ে কোচবিহার জেলা পুলিশ সুপার সুমিত কুমার জানান, “পুজোর আগে কোচবিহারের ট্রাফিক ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে পার্কিং নিয়ে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।” সবশেষে এখন এটাই দেখার সাধারণ মানুষের এহেন সমস্যা সমাধানের উদ্দেশে কোচবিহার জেলার প্রসাশন কি আদৌ কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করে কিনা।

আরও পড়ুন