Ad
কোচবিহার

পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে গিয়েও শেষ রক্ষা হল না খুনের আসামির, ১২ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই পালিয়ে যাওয়া খুনের আসামি কে পুনরায় শ্রীঘরে ধরে আনলো কোচবিহার জেলা পুলিশ

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

কোচবিহার:১২ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই পুলিশের চোখের ধুলো দেওয়া পালিয়ে যাওয়া খুনের আসামি কে পুনরায় শ্রীঘরে ধরে আনলো কোচবিহার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে খুনের আসামি বিপ্লব রায়কে কোচবিহার ২ নং ব্লকের পুন্ডিবারি এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুন্ডিবারী থানার ওসি ও কোতোয়ালি থানার বিশেষ দল।

Ad

মঙ্গলবার কোচবিহার মহারাজা জিতেন্দ্র নারায়ান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে এক্স রে রুম থেকে পালিয়ে গিয়েছিল মাকে খুন করার আসামি বিপ্লব। বুধবার কোচবিহার 2 নম্বর ব্লকের পুন্ডিবাড়ি কালাপানি এলাকা থেকে তাকে পুনরায় গ্রেফতার করা হয়।

কোচবিহার জেলা পুলিশ সুপার সুমিত কুমার জানান, গতকাল থেকেই চিরুনি তল্লাশি চলছিল আসামিকে পুনরায় গ্রেপ্তারের জন্য। সূত্র মারফত খবর আসে আসামি কালাপানি এলাকায় লুকিয়ে আছে। পুন্ডিবাড়ী থানা এবং কোচবিহার কোতোয়ালি থানার যৌথ প্রচেষ্টায় আজ তাকে কালাপানি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে পালিয়ে যাওয়া সংক্রান্ত সংশ্লিষ্ট অভিযোগে মামলা রুজু করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ২১ শে মে বিপ্লব রায় তার ৬০ বছর বয়সি মা মুক্তা বালা রায়কে খুন করে। সেই ঘটনায় অভিযুক্ত বিপ্লবকে পুলিশ গ্রেফতার করে। তার পর তাকে জেল হেপাজতে নেয় পুলিশ। কিন্তু আজ পুলিশ তাকে এক্স-রে করার জন্য কোচবিহার এমজেএন মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে এলে সেখান থেকে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে অভিযুক্ত বিপ্লব পালিয়ে যায়।

আরও পড়ুন