Ad
কোচবিহার

কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে প্রাক্তন যুব সভাপতির প্রথমবর্ষ প্রয়াণ দিবস পালন

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

কোচবিহার, ২৯ জুলাইঃ কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন যুব সভাপতি বিষ্ণুপদ বর্মণের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী পালন করল তৃণমূল কংগ্রেস। আজ তার মৃত্যু বার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন করল কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে।

এদিন এই শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, রাজ্য শিক্ষা দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী পরেশ চন্দ্র অধিকারী, কোচবিহার জেলা তৃণমূল সভাপতি পার্থ প্রতিম রায়, কোচবিহার ২ নং ব্লক তৃণমূল সভাপতি গোপাল কৃষ্ণ দাস, মৃত বিষ্ণুপদ বর্মণের দাদা প্রিয়ব্রত বর্মণ সহ সকলে। এদিন শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন অনুষ্ঠানের শেষে ৭ টি ক্লাবকে ২টি করে ফুটবল এবং চারা গাছও প্রদান করা হয় কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে।

Ad

শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন অনুষ্ঠানের শেষে কোচবিহার জেলা তৃণমূল সভাপতি পার্থ প্রতিম রায় জানান, গত বছর আজকের দিনে কোচবিহার জেলা প্রাক্তন যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি বিষ্ণুপদ বর্মণ মারা গিয়েছিলেন। তার প্রথম বর্ষ মৃত্যু বার্ষিকীতে আজ শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন অনুষ্ঠান করা হল কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে, এ ছাড়াও আজ এই শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কিছু চারা গাছ রোপণ করা হবে, কিছু চারা গাছ বিতরণ করা হবে। আজ দুপুরে কিছু দুস্থ মানুষকে খাবার বিতরণ করা হবে। তিনি আরও জানান, জেলার বিভিন্ন প্রান্তে এই শ্রদ্ধাঞ্জলী জ্ঞাপন অনুষ্ঠান চলছে।

প্রসঙ্গত, গত বছর আজকের দিনে কোলকাতায় মৃত্যু হয়েছিল কোচবিহারের তৃণমূল যুব কংগ্রেসের প্রাক্তন জেলা সভাপতি বিষ্ণুপদ বর্মণের। ১৭ জুলাই কোচবিহার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি হন বিষ্ণু বাবু। করোনা পরীক্ষায় রিপোর্ট নেগেটিভ আসে বলে জানিয়েছেন কোচবিহারের জেলা শাসক। কিন্তু শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকায় তাঁকে কোচবিহার থেকে শিলিগুড়ির একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে শারীরিক অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য নেতৃত্বের তত্ত্বাবধানে সড়ক পথে শিলিগুড়ি থেকে কোলকাতায় নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে নিয়ে গিয়েও শেষ রক্ষা হয়নি।

আজ বৃহস্পতিবার তার শ্রদ্ধা জ্ঞাপন অনুষ্ঠানে জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি পার্থ প্রতিম রায় জানান, প্রাক্তন তৃণমূল কংগ্রেসের যুব সভাপতি বিষ্ণুব্রত বর্মন গতবছর আজকের দিনেই পরলোকগমন করেছেন। তার স্মৃতি স্মরণে আজকের দিনে আমরা কোচবিহার তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধাঞ্জলি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। তাঁর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন সহ আমরা আটটি ক্লাবকে ফুটবল বিতরণ এবং কিছু গাছের চারা রোপন করব। এছাড়াও দুপুর একটায় যারা ফুটপাতে থাকেন তাদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করেছি।

তার এই অকাল প্রয়াণে কোচবিহার জেলার সকল মানুষ গভীরভাবে শোকাহত হয়েছে পড়েছিলেন। তিনি না থাকায় কোচবিহার জেলায় ক্রীড়া জগতে যে ক্ষতি হয়েছে তা পূরণ করা সম্ভব হবে কিনা তার প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে কোচবিহারর ক্রীড়া প্রেমী মানুষের মনে।

আরও পড়ুন