Ad
কোচবিহার

কোচবিহার জেলা পুলিশের ফের বড়সড় সাফল্য, চোরাই গাড়ি উদ্ধার করে অসম পুলিশের হাতে তুলে দিল বক্সিরহাট থানার পুলিশ

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

বক্সিরহাট, ২৪ সেপ্টেম্বরঃ চোরাই গাড়ি উদ্ধার করে অসম পুলিশের হাতে তুলে দিল বক্সিরহাট থানার পুলিশ। অপরদিকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত গাড়ি উদ্ধার করল পুলিশ। বক্সিরহাট থানার পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ৯ সেপ্টেম্বর বক্সিরহাট থানার কাশিয়াবাড়িতে রাস্তার ধারে একটি সন্দেহজনক সাদা রঙের ছোট গাড়িকে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশ। দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও গাড়িটি কেউ নিতে না আসায় সন্দেহবশত পুলিশ গাড়িটিকে বক্সিরহাট থানায় নিয়ে আসে। গাড়ির মালিকের সন্ধানে পরে ছবি সহ সমস্ত থানায় বার্তা পাঠায় বক্সিরহাট থানার পুলিশ। অবশেষে সেই বার্তার সূত্র ধরে অসম গুয়াহাটি এলাকার হাতীগাওঁ থানার পুলিশ বক্সিরহাট থানার সঙ্গে যোগাযোগ করে।

অসম পুলিশ জানায়, গত ২৫ অগাস্ট তাদের এলাকা থেকে গাড়িটি চুরি যায়। এ ব্যাপারে গাড়ির মালিক ঐ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন যার কেস নাম্বার ৬৭৩/২১। এরপরই হাতীগাওঁ থানার গাড়ি চুরি কান্ডের তদন্তকারী অফিসার পঙ্কজ উপাধ্যায় শুক্রবার বক্সিরহাট থানায় এলে তার হাতে বক্সিরহাট পুলিশের পক্ষ থেকে  নিয়ম কানুন মেনে গাড়িটিকে তুলে দেওয়া হয়।

Ad

অপরদিকে শালবাড়ির বুড়িবামনী বাজারে রেশন ডিলার নিরেন কোঙ্গারের বাড়িতে ডাকাতির কাণ্ডে ব্যবহৃত বোলেরো গাড়িটিকে উদ্ধার করল বক্সিরহাট থানার পুলিশ। বুধবার রাতে দেওয়ানহাট এলাকার একটি বাঁশ ঝোপের ভেতর লুকিয়ে রাখা গাড়িটিকে পুলিশ উদ্ধার করে বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায়।

পুলিশ জানায় ডাকাতির সঙ্গে জড়িত সন্দেহে মঙ্গলবার দেওয়ানহাট এলাকার দুই বাসিন্দাকে পুলিশ গ্রেফতার করে। তাদের পুলিশি হেফাজতে নেবার পর জেরা করে পুলিশ গাড়িটির সন্ধান পায়। বুধবার পুলিশ দেওয়ানহাটে গিয়ে গাড়িটিকে উদ্ধার করে ও বাজেয়াপ্ত করে থানায় নিয়ে আসে। তবে গাড়িটিকে উদ্ধার করলেও গাড়ির মালিক পলাতক বলে পুলিশ জানায়। তার খোঁজে তল্লাশি চলছে। পুলিশ জানায় ডাকাতরা সেদিন ওই বোলেরো গাড়িতে করেই নিরেন কোঙ্গারের বাড়িতে ডাকাতি করতে গিয়েছিল বলে প্রাথমিক তদন্তে তারা জানতে পেরেছে। গাড়ির মালিকের খোঁজে তল্লাশি চলছে।

আরও পড়ুন