Ad
কোচবিহার

তৃণমূলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে কমিশনের দ্বারস্থ কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী সহ কোচবিহারের বিজেপি নেতৃত্ব

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

কোচবিহার, ২৩ অক্টোবরঃ তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে দিনহাটা উপনির্বাচনের জন্য নিয়োগ করা নির্বাচন কমিশনের সাধারণ ও পুলিশ অবজার্ভারের সাথে দেখা করে অভিযোগ জানালেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী নিশীথ প্রামাণিক সহ জেলার বিজেপি নেতৃত্বরা।

আজ কোচবিহার সার্কিট হাউজে এসে নির্বাচন কমিশনের ওই দুই অবজার্ভারের সাথে দেখা করেন তাঁরা। পরে সার্কেট হাউজের সামনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী নিশীথ প্রামাণিক জানান, ভোট পরবর্তী সময় থেকে তৃণমূল কংগ্রেস সন্ত্রাস চালিয়ে যাচ্ছে।

Ad

দিনহাটা উপনির্বাচনে সেই সন্ত্রাস এখনও চলছে। বিজেপি প্রার্থী, বিধায়ক ও অন্যান্য নেতৃত্বরা প্রচার করতে গেলে হয় আক্রান্ত হচ্ছেন, নতুবা বাধা দেওয়া হচ্ছে। বিজেপি কর্মী সমর্থকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটের দিন বুথে না যাওয়ার জন্য হুমকি দেওয়া হচ্ছে। তাই কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে এখন থেকেই সন্ত্রাস প্রবণ এলাকা গুলতে রুটমার্চ করানো, বুথে বুথে সিসি টিভি ক্যামেরার ব্যবস্থা করা সহ সাধারণ মানুষকে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট দেওয়ার জন্য সমস্ত রকম ব্যবস্থা করার আবেদন জানিয়েছেন বিজেপি নেতৃত্বরা।

নিশীথ প্রামাণিক বলেন, “ দুই অবজার্ভারই আমাদের বক্তব্য শোনার পর সমস্ত বিষয় নিয়ে আশ্বস্ত করেছেন। আমরা আশাবাদী নির্বাচন কমিশন নির্ভয়ে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে সমস্ত রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।”

৩০ অক্টোবর রাজ্যের চার বিধানসভায় উপনির্বাচন হতে চলেছে। এতে দিনহাটা বিধানসভা কেন্দ্র রয়েছে। ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত রাজনৈতিক দল গুলো নিজেদের প্রার্থীর হয়ে ভোট আবেদন করে প্রচার করতে পারবেন। ফলে হাতে সময় কিমি. থাকায় প্রত্যেক রাজনৈতিক দলই প্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। কিন্তু বিজেপির অভিযোগ, এদিনও প্রচার করতে গিয়ে বিজেপি দুই বিধায়ক বাধার মুখে পড়েছেন। এর আগে তাঁদের প্রার্থী সহ এক বিধায়ককে হেনস্থা করা হয়েছে। তাঁদের কর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে ভোটের দিন বুথে না যাওয়ার জন্য হুমকি দেওয়া হচ্ছে। তাই শেষ পর্যায়ে এসে কমিশনের দ্বারস্থ হতে হয়েছে তাঁদের।

আরও পড়ুন