কোচবিহারে এলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর

কোচবিহার – কোচবিহারে এলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। সঙ্গে ছিলেন কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামানিক।

এদিন বেলা ১০টা৩০মিনিট নাগাদ বাগডোগরা থেকে কোচবিহারে এসে পৌঁছান রাজ্যপাল। এরপর তিনি কোচবিহার রাসমেলা মাঠের পাশে ঠাকুর পঞ্চানন বর্মার মূর্তিতে মাল্যদান করেন। সেখানে এসে পঞ্চানন বর্মার বেদীতে সস্ত্রীক মাল্যদান করার পাশাপাশি হাটু গেড়ে প্রণাম করেন তিনি।

ক্ষত্রিয় সমাজের লোকদের সঙ্গে কিছু কথোপকথন সেখানে করেন তিনি। ২০-২৫ মিনিট কাটানোর পর সেখান থেকে তিনি কোচবিহারের ঐতিহ্যবাহী মদনমোহন ঠাকুরবাড়িতে চলে যান। মদনমোহন ঠাকুরবাড়িতে তাঁর সঙ্গে কোচবিহারের সাংসদ নিশীথ প্রামানিক যোগ দেন। এরপর তাদের তিনজনকে একসঙ্গে মদনমোহন ঠাকুরকে প্রণাম করতে দেখা গিয়েছে। মন্দিরের প্রধান পুরোহিত হরগৌরী মিশ্রকে রাজ্যপাল, সাংসদদের আশীর্বাদ করতে দেখা গিয়েছে।

পাশাপাশি মন্দির চত্বরে থাকা কালী মন্দির, মা ভবানী মন্দির সহ গোটা মন্দির চত্বর তাঁরা একসঙ্গে ঘুরে দেখেন। মন্দিরের পুরোহিতরা রাজ্যপাল, সাংসদকে মদনমোহনের প্রসাদ সন্দেশ তুলে দেন। পাশাপাশি তাদের হাতে চরণামৃত দেন। মন্দির চত্বর ঘুরে দেখার সময় সেখানে থাকা বেশকিছু খুদেদের আদরও করেন রাজ্যপাল। এরপর মন্দির চত্বরে এক জায়গায় কিছুক্ষণ বসে সাংসদের সঙ্গে তাকে কথোপকথন করতে দেখা যায়।

সাংসদের সঙ্গে রাজ্যপালকে ঘনিষ্ঠভাবে কথোপকথন করতে দেখায় স্বাভাবিকভাবে কোচবিহারের রাজনৈতিক মহলে যথেষ্ট গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। মদনমোহন মন্দির থেকে এরপর তিনি সোজা চলে যান কোচবিহারের ঐতিহ্যবাহী রাজবাড়ীতে।  সেখান থেকে তিনি সার্কিট হাউসে যান। দুপুরে গ্রেটার কোচবিহার পিপলস অ্যাসোসিয়েশনের একটি গোষ্ঠীর লোকেদের সঙ্গে তাঁর কিছুক্ষণ আলোচনা করার কথা রয়েছে। দুপুর ২টোয় তিনি সাংবাদিক বৈঠক করবেন।