কোচবিহারে রাজনৈতিক হিংসায় মৃত বিজেপি কর্মী হারাধন রায়ের পরিবারের সঙ্গে দেখা করলেন জেলা বিজেপি সভানেত্রী ও বিধায়ক মালতি রাভা রায়

দিনহাটা, ১৬ মেঃ ভোট পরবর্তী হিংসায় দিনহাটার পেটলায় খুন হয়েছিলেন বিজেপি কর্মী হারাধন রায়। এদিন তাদের বাড়িতে গিয়ে পৌঁছলেন বিজেপির কোচবিহার জেলা সভানেত্রী ও তুফানগঞ্জের বিজেপি বিধায়ক মালতি রাভা রায়।

ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক হিংসা ছড়িয়েছিল একাধিক একালায়। বলি হয়েছিল অনেক জীবন। ঠিক একই ঘটনা ঘটেছে কোচবিহার জেলার দিনহাতা মহকুমার পেটলা এলাকায়। ভোটের ফল গননার দুদিনের মধ্যেই হিংসার বলি হয়েছিলেন দিনহাটার পেটলা এলাকার এক বাসিন্দা হারাধন রায়।

এদিন কোচবিহার বিজেপির জেলা সভানেত্রী মালতি রাভা রায় পেটলায় সেই বাড়িতে যান। সেখানে তিনি মৃত সেই যুবকের পরিবারের সঙ্গেও কথা বলেন।

তিনি জানান, দুদিন পর হারাধন রায় এর পারলৌকিক ক্রিয়া অনুষ্ঠিত হবে, সেই জন্য তারা সেখানে তাঁর পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছেন। তিনি সেই পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন ও এই ঘটনার জন্য যারা দায়ী তাদের তাদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান।

পাশাপাশি তিনি বলেন, দিনহাটা, সিতাই সহ বিভিন্ন এলাকায় যে রাজনৈতিক হিংসা চলছে তা রুখতে পুলিশ ব্যাবস্থা নিক ও যারা এইসব ঘটনার জন্য দায়ী তাদের তাদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করুক। এছাড়াও তিনি এলাকার শান্তি রক্ষার পাশাপাশি ঘরছাড়াদের ঘরে ফেরানর দাবি জানান।

প্রসঙ্গত, কোচবিহারের বিভিন্ন এলাকায় বিধানসভা ভোটের ফল প্রকাশের পরপরই রাজনৈতিক হিংসা চরমে ওঠে। এই হিংসার বলি হন তিন জন। তাঁর মধ্যে ছিলেন পেটলার এই যুবক হারাধন রায়। ইতিমধ্যেই হিংসা কবলিত এলাকা গুলি পরিদর্শনে এসেছিলেন রাজ্যপাল।

তিনি সিতাই শিতলখুচি, দিনহাতা সহ কোচবিহারের একাধিক এলাকা পরিদর্শন করেন। এদিন সেই একই ভুমিকায় দেখা গেলো বিজেপির কোচবিহার জেলা সভানেত্রী মালতি রাভা রায় কেও।