বিয়ের দাবিতে দিনহাটায় প্রেমিকের বাড়িতে ধর্না প্রেমিকার

দিনহাটা, ২৮ জানুয়ারিঃ বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে ধর্নায় বসল যুবতী। ঘটনাটি ঘটেছে দিনহাটা ২নং ব্লকের নিগমনগর এলাকায়। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

জানা গিয়েছে, পেশায় বিদ্যুৎ কর্মী বাপ্পা দেবনাথের বাড়িতে ধর্নায় বসে এক যুবতী। রবিবার বিকেল থেকে ওই যুবতী ওই বিদ্যুৎ কর্মীর বাড়িতে ধর্নায় বসেন।

ওই যুবতীর অভিযোগ, তার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্কে লিপ্ত ছিলেন ওই যুবক। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে একাধিকবার সহবাসের পরেও বিয়ে করতে অনীহা প্রকাশ করে সে। এরপর রবিবার সন্ধ্যা থেকে অভিযোগকারী ওই যুবতী প্রেমিকের বাড়িতে ধরনায় বসে।

অভিযোগকারী যুবতী আরও বলেন, প্রথমে তার অন্যত্র বিয়ে হয়েছিল। প্রথম স্বামীর একটি সন্তান তার কাছে রয়েছে। সব কিছু জেনেই নাকি ওই যুবক তার সঙ্গে দীর্ঘদিন সহবাস করে। পরবর্তীতে মেয়েটি জানতে পারে ছেলেটির সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার জন্য অন্যত্র মেয়ে খোঁজাখুঁজি করছে তার বাড়ির লোক। এই খবর জানতে পেরেই গতকাল সন্ধ্যা থেকে ধর্নায় বসে সে।

যদিও অভিযোগ অস্বীকার করে ছেলের মা বলেন, দোকান ভাড়া নেওয়ার সুবাদে তার ছেলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা গড়ে তোলার চেষ্টা করে ওই যুবতী। পরবর্তীতে ছেলের কাজের জায়গায় গিয়ে তার কাছ থেকে নানান সুযোগ সুবিধা নেওয়ার চেষ্টা করে। যদিও ছেলের সঙ্গে অভিযোগকারী ওই যুবতীর কোন সম্পর্ক নেই বলে সাফ জানিয়ে দেয় ছেলের মা।

অভিযোগকারী মেয়ের বাবা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে তার মেয়ের সঙ্গে ওই ছেলের সম্পর্ক রয়েছে। এর বেশি তিনি আর কিছু জানেন না। এদিকে ওই যুবতী ওই বিদ্যুৎ কর্মীর বাড়িতে ধর্নায় বসার ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন বাপ্পা দেবনাথ। ছেলের বাড়িতে ধর্নায় বসার ঘটনার কথা জানতে পেরেই স্থানীয় এলাকার বাসিন্দারা এই বাড়িতে ভিড় জমাতে শুরু করে বলে জানা যায়।