কোচবিহারে জামাইষষ্ঠীতে করোনা বিধিনিষেধ অমান্য করার অভিযোগে ৩১ জনকে গ্রেফতার করল শীতলকুচি থানার পুলিশ

শীতলকুচিঃ জামাই ষষ্ঠী বলে কথা, তাই করোনাকে তোয়াক্কা করে বিধিনিষেধ সব চুলোয় দিয়ে বাজারে ভির জমাচ্ছিলেন মানুষ। আর সেটা করতে গিয়ে অনেককেই এখন শ্বশুর বাড়ির বদলে থানার লকারে গিয়ে জামাইষষ্ঠী করতে হচ্ছে। আজ শীতলখুচি থানার করোনা বিধিনিষেধ অমান্য করার অভিযোগে ৩১ জনকে আটক করার এমনই তথ্য সামনে এসেছে।

সরকার বারংবার প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে সরকারি নির্দেশ মানার জন্য যাতে করোনায় আক্রান্ত না হয় মানুষজন। নিরাপদ দূরত্বে থাকা, মাক্স ব্যবহার করা, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা, জামায়াত নিষিদ্ধ করা,ইত্যাদি সচেতনতা মূলক প্রচার কিন্তু চালিয়ে যাচ্ছে সরকার। কিন্তু তাতেও হেলদোল নেই অনেকের। দিনের দিন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে সচেতনতার অভাবে। তাই বাধ্য হয়ে মাঝে মাঝে পুলিশ বিভিন্ন বাজারে গিয়ে তল্লাশি চালাচ্ছে কারা কারা করোনার নিয়ম-নীতি অমান্য করছে।

শীতলকুচি থানার ওসি মৃত্যুঞ্জয় চক্রবর্তী জানান, মাক্স বিহীন এবং করোনার বিধি নিষেধ অমান্য করায় ৩১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে বিপর্যয় মোকাবিলায় আইনে মামলা রুজু হয়েছে। তাদেরকে আদালতে তোলা হবে।

এই নিয়ে শীতলকুচি এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে অনেকেই এই অবস্থা দেখে যাদের মাক্স নেই তারাও মাক্স কেনা শুরু করে দিয়েছে। মানুষজন সচেতন থাকলে নিশ্চিত ভাবে করো না কে ঠকানো সম্ভব হবে বলে শুভবুদ্ধি সম্পন্ন নাগরিকরা জানিয়েছেন।