আগামী ১৬ ডিসেম্বর কোচবিহার রাসমেলা ময়দানে সভা করতে আসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

UBG NEWS: আগামী ১৬ ডিসেম্বর কোচবিহার রাসমেলা ময়দানে সভা করতে আসছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি ১৫ তারিখে আলিপুরদুয়ারে তৃণমূল কংগ্রেসের দলের জেলা নেতৃত্বেদের সাথে বৈঠক করবেন এবং দুটি জেলা জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ারের মধ্যেবত্তি স্থানে একটি জায়গায় জনসভা হওয়ার কথা রয়েছে বলে সূত্রের খবর ।

১৬ ই ডিসেম্বর জনসভার পরেই মুখ্যমন্ত্রী এইদিনে শিলিগুড়ির বাগডোগরা বিমানবন্দর হয়ে কলকাতায় ফিরে যাবেন । এ রাজ্যে ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচন এখনও প্রায় ৬টি মাস বাকি রয়েছে। তবে নির্বাচনের এতদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী কোচবিহার সফর নিয়ে রাজনৈতিক জোর জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে।

আর এদিকে ডিসেম্বরেরই পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে নানান কর্মসূচিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডারও আগমন । মনে হয় যেন নির্বাচন আর বেশী দিন নেই কারণ হেভিওয়েটদের আগমন ঘিরে।

রাজ্য ২০১৯ সালের সর্বশেষ লোকসভা নির্বাচনে এই জেলায় তৃণমূলের পতনের পরে, জেলার দলীয় কর্মী ও সমর্থকরা হতাশ হওয়ারই কথা । আর কোচবিহার জেলার অন্যতম প্রবীণ তৃণমূল নেতা এবং কোচবিহার দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক মিহির গোস্বামী দলবদলে সম্প্রতি তৃণমূল কংগ্রেসের দলটিকে হয়তো অস্বস্তিতে ফেলেছে ।

এই রকম পরিস্থিতিতে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের আস্থা হ্রাস পেয়েছে। বলা বাহুল্য, মুখ্যমন্ত্রীর এই সফরটি ওই পরিস্থিতি সামলানোর জন্য কোচবিহারে আগমন কী । বর্তমানে তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ কর্মীসহ জেলা নেতারা দলের মর্যাদা ফিরিয়ে আনার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কর্মীদের কী বার্তা দিবেন বা কিভাবে জনসাধারণ সহজে পরিষেবা গুলি পাবে বা এবং দলের সংগঠন মজবুত করতে দিশা দেখাবেন । আর ইতিমধ্যে লক্ষ্যণীয় রাজ্যে দুয়ারে সরকার ।

অন্যদিকে, বিজেপি বলেছে যে মুখ্যমন্ত্রীর এই সফর তৃণমূল কংগ্রেস লাভবান হতে পারবে না । ইতিমধ্যে কোচবিহার এক বিধায়ক তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। এখন দেখার বিষয় রাজ্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোচবিহারের এসে কী বার্তা দেন বা বিজেপির বিরুদ্ধে কীভাবে নির্বাচনে প্রচার করতে হবে।