শীতলকুচি গুলি কাণ্ডে মৃতদের পরিবারকে সরকারি চাকরির ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

ইউবিজি নিউজ : চতুর্থ দফা নির্বাচনে কোচবিহারের শীতলকুচিতে ও মাথাভাঙ্গায় নিহতদের পরিবারগুলিকে সরকারি চাকরি দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে একথা জানান মমতা।একইসঙ্গে দোষীদের চিহ্নিত করে অবিলম্বে শাস্তি দেওয়ারও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। দোষীদের কোনওভাবেই রেয়াত করা হবে না এদিন আরও একবার জোর দিয়ে জানিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিকে, তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েই রাজ্যের প্রশাসনিক স্তরে একাধিক রদবদল ঘটান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বদল করা হয়েছে পুলিশ কর্তাদের। কোচবিহারের পুলিশ সুপারের উপরেও কোপ পড়েছে। প্রশাসন সূত্রে খবর, ভোটের সময় শীতলকুচিতে কেন্দ্রীয় জওয়ানদের গুলি চালানোর ঘটনার জেরেই পুলিশ সুপারকে সাসপেন্ড করা হল।

চতুর্থ দফার ভোট চলাকালীন শীতলকুচিতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে মৃত্যু হয়েছিল ৪ জনের। ক্ষমতায় এসেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার সরিয়ে দিল কোচবিহারের পুলিশ সুপার দেবাশিস ধরকে। বুধবার রাতে তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়। ওই ঘটনার তদন্তও করবে নবান্ন।

সাংবাদিক বৈঠক থেকে এদিন একাধিক ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। ভোট পরবর্তী হিংসায় মৃতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথাও এদিন ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ পাশাপাশি প্রত্যেকটি সরকারি হাসপাতালে ৪০ শতাংশ শয্যা বাড়ানোর কথাও জানান তিনি ৷