কোচবিহারে তৃণমূল কর্মীদের খুনের চক্রান্তে হামলার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে, আশঙ্কাজনক ২

UBG NEWS, কোচবিহার, ২১ জানুয়ারিঃ তৃণমূল কংগ্রেসের জনসংযোগ কর্মসূচিতে ব্যাপক সাড়া মিলছে সাধারণ মানুষের। আর এটাই চোখের কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছ বিজেপির। তাই বাছাই করে প্রাণে মেরে ফেলার চক্রান্ত করা হচ্ছে তৃণমূল কর্মীদের।

বৃহস্পতিবার কোচবিহার ১ নম্বর ব্লকের মাঘপালা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় যুব তৃনমূলের একটি কর্মসূচি ছিল। অভিযোগ, সেখানে উপস্থিত হয় বিজেপির একদল কর্মী। টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যাওয়া হয় তৃণমূলের দুই কর্মীকে। বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। তৃণমূল কর্মীদের বাড়ি লক্ষ্য করে বোমাবাজির অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার এই কথা জানান জেলা তৃণমূল নেতা তথা পৌর প্রশাসক রাহুল রায়।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তৃণমূল স্থানীয় নেতৃত্ব এবং কর্মীদের উপরে প্রাণে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে হামলা চালাচ্ছে বিজেপি। ঘটনায় দুজন গুরুতর আহত অবস্থায় কোচবিহার জিতেন্দ্র নারায়ান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আমরা এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিরোধ গড়ে তুলবো।

তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি দুয়ারে সরকার, বঙ্গ ধনী, এবং জনসংযোগ কর্মসূচি গুলির মাধ্যমে মানুষের সাড়া পাওয়া গেছে প্রবলভাবে।তাই নিজেদের অস্তিত্ব সংকটে দেখে সন্ত্রাসের রাজনীতিতে নেমেছে বিজেপি। এই সন্ত্রাস কখনোই মেনে নেওয়া হবে না।
কোচবিহার জেলা পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে বিরাট পুলিশ বাহিনী।

অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপির বক্তব্য, আমারা কোচবিহার তথা গোটা বাংলায় দেখেছি তৃণমূলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্ব কি পরিমাণ ভয়ংকর রুপ নিয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেসের বরাবরই যুব ও মাদারের লড়াই থাকে, কিন্তু এখনতো আবার তাদের ৪-৫টা গ্রুপ। এই গ্রুপের মধ্যে বিভিন্ন সময়ই মারপিট, হামলা হয়, এটা বিজেপির সঙ্গে নয় নিজেরা নিজেরা সংঘর্ষে জড়িয়ে এই ঘটনা ঘটিয়ে বিজেপির উপর দোষ চাপাচ্ছে।