অভিভাবক বিহীন কোচবিহার দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের দলের দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিলেন অভিজিৎ

ইউবিজি নিউজ, কোচবিহার : বিধায়ক চলে গেছেন অন্য দলে, নেতৃত্বরা একপ্রকার দিশাহীন। ধীরে ধীরে নিজেদের ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে মরিয়া বিজেপি। নিচু তলার কর্মীরা সন্ধিহান। এমনটাই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে কোচবিহার দক্ষিণ বিধানসভা এলাকায়।

বিধায়ক মিহির গোস্বামী চলে গেছেন বিজেপিতে। তাই বলে মানুষ কি জোড়া ফুলের সঙ্গ ছেড়ে দিয়েছে? উত্তর যাই হোক না কেন বর্তমানে নেতৃত্ব হীনতায় ভুগছে কোচবিহার দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্র টি। তাই মঙ্গলবার থেকে সম্পূর্ণ দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের সাংগঠনিক এবং দলীয় প্রচারের দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিলেন জেলার যুব তৃণমূল সভাপতি অভিজিৎ দে ভৌমিক। তিনি বলেন দীর্ঘদিন থেকেই বিভিন্ন তালবাহানা মানুষের উন্নয়ন স্থগিত হয়েছিল।

ইতিমধ্যেই মানুষের সাথে বেঈমানী করে দল ত্যাগ করেছেন বিধায়ক। তাই বলে মানুষ তৃণমূলের সঙ্গ ছাড়ে নি। আমরাও চাই এলাকায় উন্নয়ন পৌঁছে দিতে। তাই আগামী সাতদিন ধরে জনসংযোগ কর্মসূচির উদ্দেশ্যে এলাকার জাতি উপজাতি নির্বিশেষে কর্মীদের বাড়িতে রাত্রি বাস করবে যুব তৃণমূল নেতৃত্ব। একইসাথে এলাকাকে সাজিয়ে তুলতে ১০০০০ ফেসটিউন যেখানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়নের বার্তা, এবং তৃণমূল কংগ্রেসের আগামী বিভিন্ন কর্মসূচি থাকবে।

পাশাপাশি এলাকাকে সাজিয়ে তোলার জন্য এক লক্ষ পতাকা লাগাবে যুব তৃণমূল।অবশ্যই সাধারণ মানুষের অনুমতি নিয়ে তাদের নিজস্ব এবং ব্যক্তিগত জমিতে এবং পতাকা লাগানো হবে বলে জানান অভিজিৎ বাবু।

কর্মসূচি আজ অর্থাৎ মঙ্গলবার দিন থেকেই শুরু হবে। ইতিমধ্যেই পতাকা তৈরির কাজ শুরু করে দেওয়া হয়েছে। নির্দিষ্ট নয় এলাকার সাধারণ মানুষের বাড়িতেই রাত্রি বাস করার উদ্যোগ রয়েছে তাদের।

অভিজিৎ বাবু বলেন,এই কর্মসূচির মাধ্যমে সাধারণ মানুষের সাথে আরো নিবিড় সম্পর্ক স্থাপন হবে।