তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল দিনহাটা কলেজ চত্বর

UBG NEWS: তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল দিনহাটা কলেজ চত্বর। সোমবার এ ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন ছাত্র ছাত্রী আহত হয়। এদের মধ্যে সাগর সরকার নামে এক ছাত্র আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে তাকে দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে কোচবিহার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের নির্দেশ দেন চিকিৎসক। এই ঘটনায় দিনহাটায় প্রচন্ড উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, এদিন দিনহাটা কলেজে এক ছাত্রীকে ইভটিজিং করে কতিপয় ছাত্র। বিষয়টি নিয়ে ঘটনার সূত্রপাত। যারা ইভটিজিং করে তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ায় তৃণমূল ছাত্র পরিষদের কতিপয় ছাত্র। এ দিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে প্রথমে বচসা বাঁধে। পরে তা সংঘর্ষের রূপ নেয়। এক গোষ্ঠী অপর গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে রীতিমতো লাঠিসোটা দিয়ে আক্রমণ করে। দফায় দফায় সংঘর্ষ চলতে থাকে।

খবর পেয়ে বিশাল পুলিশবাহিনী দিনহাটা কলেজ চত্বরে পৌঁছায়। পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন ছাত্র ছাত্রী আহত হয়। তাদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। সাগর সরকার নামে ওই ছাত্রকে প্রথমে দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরিস্থিতি অবনতির দিকে যেতে থাকলে তাকে কোচবিহার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের নির্দেশ দেন চিকিৎসক।

এ বিষয়ে অজয় রায়ের অনুগামী তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেত্রী সাবানা খাতুন বলেন, তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রাক্তন জেলা সভাপতি শাহেদ চৌধুরীর অনুগামী ছাত্ররা দিনহাটা কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের উপর হামলা চালায়। এরফলেই এই ঘটনা ঘটেছে। তারা কলেজের ছাত্রীদের ইভটিজিং করে বলে অভিযোগ করেছেন সাবানা খাতুন।

অপরদিকে এ বিষয়ে সাবির সাহা চৌধুরী অনুগামী তৃণমূল ছাত্র পরিষদের কর্মী প্রিয়ংকর রায় বলেন, অজয় রায় অনুগামী তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বহিরাগত ছাত্ররা কলেজে ঢুকে ছাত্র-ছাত্রীদের মারধর করে। এতে সাগর সরকার নামে দ্বিতীয় বর্ষ স্নাতক শ্রেণীর এক ছাত্র গুরুতর আহত হয়েছে। বর্তমানে সে কোচবিহার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি।