চলন্ত বাস থামিয়ে মাধ্যমিকের ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ উঠল একদল যুবকের বিরুদ্ধে | UBG NEWS

UBG NEWS, মেখলিগঞ্জ : কোচবিহারের মেখলিগঞ্জ ব্লকের ১৬ নম্বর রাজ্য সড়ক সংলগ্ন চৌরঙ্গি এলাকায় চলন্ত বাস আটকে তিন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী কে মারধরের অভিযোগ উঠল একদল অপরিচিত যুবকের বিরুদ্ধে।
বিষয়টি নিজেদের স্কুলের প্রধান শিক্ষকে জানায় এবং লিখিত অভিযোগ করে ছাত্ররা। ছাত্রদের অভিযোগ পেয়ে প্রধান শিক্ষক সুনীল চন্দ্র দাস পরীক্ষা নিয়ামক আধিকারিক এবং পুলিশকে বিষয়টি জানায়। 
মেখলিগঞ্জের জামালদহ তুলসীদেবী হাইস্কুলের ছাত্রদের সিট পড়েছিল ১৮ কিমি দূরে চ্যাংরাবান্ধা হাইস্কুলে।
অভিযোগ, গত ক’দিন ধরেই পরীক্ষা দিয়ে ফেরার পথে রাস্তার উপরই ছাত্ররা নকল করা কাগজপত্র ফেলছিল। এর ফলে বাজার চত্বরের রাস্তা অপরিষ্কার হচ্ছিল। স্থানীয় কয়েকজন যুবক ছাত্রদের নকলের কাগজপত্র ফেলতে বারণ করলেও তারা তা শোনেনি।
কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শীর কথায়, “বাস আটকে ছাত্রদের উপর চড়াও হয় এলাকারই কয়েকজন যুবক। রাস্তায় নকলের কাগজপত্র ফেলা নিয়ে শুরু হয় ঝামেলা।”
মেখলিগঞ্জ থানার পুলিশ জানিয়েছে, “বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। লিখিত অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
জামালদহ হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক সুনীল চন্দ্র দাস জানান, “তিন জন ছাত্র আহত হয়েছে। একজনের জামা প্যান্ট ছিঁড়ে গেছে। ছাত্রদের ঠিক কী কারণে মারধর করা হলো তা স্পষ্ট নয়। তবে অভিভাবক এবং ম্যানেজিং কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে দেখব ঠিক কি করা হবে থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হবে কি না।”