নিখিলের সঙ্গে সহবাস করেছি, বিয়ে নয়, বিচ্ছেদের প্রশ্ন ওঠে নাঃ নুসরত

কলকাতা ৯ জুনঃ কয়েকদিন ধরেই নুসরত জাহানের বৈবাহিক সম্পর্ক ও তাঁর সন্তানসম্ভবা হওয়া নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে নিখিলের সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের নিরিখে অবশেষে মুখ খুললেন নুসরত। তুরস্কে বিয়ে হয়েছিল তাঁদের।

সেই প্রসঙ্গ টেনে নুসরত জানালেন, তুরস্কের বিবাহ আইন অনুসারে এই অনুষ্ঠান অবৈধ। উপরন্তু হিন্দু-মুসলিম বিবাহের ক্ষেত্রে বিশেষ বিবাহ আইন অনুসারে বিয়ে করা উচিত। যা এ ক্ষেত্রে মানা হয়নি। ফলত, এটা বিয়েই নয়। বুধবার একটি বিবৃতি জারি করে  বললেন, ‘নিখিলের সঙ্গে আমি সহবাস করেছি। বিয়ে নয়। ফলে বিবাহ-বিচ্ছেদের প্রশ্নই ওঠে না’।

মা হবেন নুসরত। সন্তানের পিতৃপরিচয় কী? গত ৫ দিন ধরে অভিনেত্রী এবং সাংসদ নুসরত জাহানকে নিয়ে জোরদার বিতর্ক চলছে। এমনকি লেখিকা তসলিমা নাসরিনও নুসরতের নীরবতা নিয়ে কথা বলেছিলেন নেটমাধ্যমে। লিখেছিলেন, ‘…এই যদি পরিস্থিতি হয়, তবে নিখিল আর নুসরতের ডিভোর্স হয়ে যাওয়াই কি ভালো নয়? অচল কোনও সম্পর্ক বাদুড়ের মতো ঝুলিয়ে রাখার কোনও মানে হয় না। এতে দু’পক্ষেরই অস্বস্তি’।

নুসরতের দাবি, তাঁর সমস্ত ব্যাঙ্কের নথিপত্রও নিখিলের কাছে ছিল এবং নিখিল তা ব্যবহার করতেন। আলাদা হয়ে যাওয়ার পরেও নুসরতের টাকা ব্যবহার করেছেন নিখিল। বুধবার নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে নুসরত লিখেছেন, ‘যে মহিলা সব শুনেও নীরব থাকেন, এ রকম পরিচয়ে পরিচিত হব না আমি’। তাঁর বিরুদ্ধে উঠে আসা অসংখ্য বিরোধী স্বরের মুখোমুখি হলেন নায়িকা।