Ad
বিধানসভা নির্বাচন-২০২১রাজ্য

ফের চার পুলিশকর্তা ও জেলাশাসক বদল করল নির্বাচন কমিশন

এই বিজ্ঞাপনের পরে আরও খবর রয়েছে

ইউবিজি নিউজ ব্যুরো : রাজ্যের নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদ থেকে সুরজিত্‍ কর পুরকায়স্থকে নিস্ক্রিয় করার ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতে ফের চার পুলিশকর্তা ও এক জেলাশাসক বদল করল নির্বাচন কমিশন। পশ্চিমাঞ্চল রেঞ্চের এডিজির পদ থেকে সরানো হল আইপিএস সঞ্জয় সিংকে। তার জায়গায় আনা হল বিজেপি ঘনিষ্ঠ হিসাবে পরিচিত আইপিএস ড. রাজেশ কুমারকে।

ঝাড়গ্রামের জেলাশাসকের পদ থেকে সরানো হল আয়েশা রানীকে। ওই পদে আনা হল জয়শী দাশগুপ্তকে। ডায়মন্ড হারবারের পুলিশ সুপার অভিজিত্‍ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বদলে নতুন এসপি করা হল অরিজিত্‍ সিনহাকে।

Ad

দু’দিনের উত্তরবঙ্গ সফর সেরে সবে দিল্লিতে ফিরেছে নির্বাচন কমিশনের ফুলবেঞ্চ। ঠিক তার পরপরই রাজ্যে আরও বেশ কয়েকটি জায়গায় বদলি করা হল প্রশাসন ও পুলিশ কর্তাদের।

বাদ পড়ল না উত্তরবঙ্গও। কোচবিহারের পুলিশ সুপার কে কান্নানের বদলে নতুন পুলিশ সুপার করা হল দেবাশিস ধরকে। অন্যদিকে দক্ষিণ কলকাতার ডিসিপি সুধীর নীলকান্তকেও সরানো হল পদ থেকে। বদলে ওই জায়গায় আনা হল আইপিএস আকাশ মেঘারিয়াকে। নির্বাচন কমিশনের তরফে সচিব রাকেশ কুমার রাজ্যের মুখ্যসচিবকে চিঠি পাঠিয়ে বদলির কথা জানিয়েছেন। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, নির্বাচন প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই নির্দেশ কার্যকর হবে।

এর আগে রাজ্যে ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণার পরে প্রথমে রাজ্য পুলিশের এডিজি (আইনশৃঙ্খলা) জাভেদ শামিমকে সরিয়ে দিয়ে তাঁর জায়গায় দমকলের ডিজি তথা গেরুয়া শিবিরের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত পি জগমোহনকে নিয়ে এসেছিল নির্বাচন কমিশন।

কয়েকদিন বাদে সরিয়ে দেওয়া হয় রাজ্যের ডিজি বীরেন্দ্রকে। তাঁর জায়গায় ডিজি করে নিয়ে আসা হয় বিজেপি ঘনিষ্ঠ পি নীরজনয়নকে। গত ১০ মার্চ নন্দীগ্রামে জনসংযোগে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনাকে হাতিয়ার করে মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তা অধিকর্তা বিবেক সহায়কে সরিয়ে দেওয়ার পথে হাঁটে।

গত বুধবারই রাজ্যের নিরাপত্তা উপদেষ্টা সুরজি‍ত্‍ কর পুরকায়স্থের ক্ষমতা খর্বের নির্দেশ দেয় নির্বাচন কমিশন। তারপরই ফের চার পুলিশকর্তা ও এক জেলাশাসক বদল করা হল।

আরও পড়ুন