ads

ডোন্ট টাচ মাই বডি,পুরুষ পুলিশকে ডাকুন, আটকের সময় আরও যা বললেন শুভেন্দু


ইউবিজি নিউজ : সাতরাগাছি যেতেই পারলেন না বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। আটকে দেওয়া হল সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ও রাজ্য নেতা রাহুল সিনহাকেও।


মঙ্গলবার ১ টা থেকে শুরু হয় বিজেপির নবান্ন অভিযান। কিন্তু গঙ্গা পার হওয়ার আগেই আলিপুরে পুলিশ ট্রেনিং স্কুলের সামনে শুভেন্দু, লকেটদের আটকে দেয় পুলিশ।


তারপর প্রিজন ভ্যানে তোলা হয় তাঁদের। তবে ১৫ মিনিট ধরে যে তর্কাতর্কি চলে শুভেন্দু ও পুলিশের মধ্যে তা ছিল রীতিমতো শোনার মতো।


একসময়ে এক মহিলা পুলিশকর্মীরা শুভেন্দুর হাত ধরে টেনে বলেন, আপনি চলুন স্যার। তাঁদের উদ্দেশে শুভেন্দু বলেন, 'আপনি পুরুষ পুলিশ ডাকুন। ডোন্ট টাচ মি। ডোন্ট টাচ মাই বডি। একি আপনি আমাকে টাচ করছেন কেন?' শুভেন্দু এ ভাবে বাধা দিতেই এগিয়ে আসেন পুলিশ কর্তা আকাশ মেঘারিয়া। শুভেন্দু তাঁকে উদ্দেশ করে বলেন, আপনারা কী ভেবেছেন? মহিলা পুলিশ দিয়ে আমাকে অপদস্ত করছেন কেন? আমার কাছে ফুটেজ রইল। হাইকোর্টে যাব।


এদিন ব্যারিকেডের সামনে দাঁড়িয়ে শুভেন্দু প্রথমে বলেন, সাঁতরাগাছি যেতে দিতে হবে। লকেট পুলিশের উদ্দেশে বলেন, আর কেউ যাবেন না। বিরোধী দলনেতা হিসেবে শুভেন্দু এবং সাংসদ হিসেবে তিনি যাবেন সাঁতরাগাছি। কিন্তু পুলিশ সাফ জানিয়ে দেয়, কোনওভাবেই সাঁতরাগাছি যেতে দেওয়া যাবে না। যেতে হলে মা ফ্লাইওভার ধরে যান।


শুভেন্দু সেইসময়ে কার্যত রণংদেহি হয়ে ওঠেন। পুলিশের উদ্দেশে বিরোধী দলনেতা বলেন, আমাদের মোটরসাইকেলে করে হাওড়া স্টেশন পৌঁছে দিন। হাওড়া থেকে ট্রেন ধরে সাঁতরাগাছি যাব।


পুলিশ সেসবে কর্ণপাত করেনি। দেখা যায় ব্যারিকেডের সামনে দাঁড়িয়ে শুভেন্দু স্লোগান দিচ্ছে, 'মমতা ব্যানার্জি হায় হায়!' তারপরেই শুভেন্দু, লকেট, রাহুলদের প্রিজন ভ্যানে তুলে নেয় পুলিশ।


অ্যাম্বুলেন্স ফিরে যাচ্ছে পুলিশি ব্যারিকেডের মুখে! বেনজির ছবি সাঁতরাগাছিতে

Post a Comment