ads

নাম না করে ‘গদ্দার’-কে খোলা চ্যালেঞ্জ মুখ্যমন্ত্রীর | UBG NEWS



UBG NEWS, ওয়েব ডেস্ক : রবিবার জলপাইগুড়ির চূড়াভাণ্ডারে নির্বাচনী সভা থেকে নাম না করে মুকুল রায়কে 'গদ্দার' বলে তুলোধোনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নাম না করে মুকুলের উদ্দেশ্যে খোলা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে মমতা বলেন, ‘সারদা, নারদা, হাওলার নেতা বলছে ডিএম-কে দেখে নেব, এসপিকে দেখে নেব, কত বড় ক্ষমতা। ভাবছে দু’টো অফিসার পাল্টালেই ভোটে জিতে যাবে’।

এ দিন পুলিশ অফিসার বদল ইস্যুতেও মুখ খোলেন মমতা। বলেন, ‘ভাবছে দুটো অফিসার পাল্টালেই ভোটে জিতে যাবে। যত পাল্টাবে, তত বদলাবে। যত পাল্টাবে, তত জিতব। এটা মাথায় রেখে দিও। আমাদের ধমকালে আমরা চমকাই, আর আমাদের চমকালে আমরা গর্জাই আর আমাদের গর্জালে আমরা বর্ষাই।’
প্রচার সভা থেকে মমতা বলেন, ‘চিটফাণ্ড কাণ্ডে বচেয়ে বড় অভিযুক্তের সঙ্গে আপনি নিজে মিটিং করছেন৷ আগে নিজের ঘরের দিকে তাকান৷ বিজেপির নেতা সারদা নারদার নেতা৷ লোকদেখানো চাওয়ালা ছিলেন আপনি৷’ রাজ্যে বহিরাগত মানুষ ঢুকছে বলে স্থানীয়দের সতর্ক করেন এদিন তৃণমূল নেত্রী৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘রাজস্থান উত্তরপ্রদেশ থেকে লোক এসে বসে আছে৷ আপনাদের ওপর নজরদারি করছে৷ সাবধানে থাকুন।’
রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, অফিসার পাল্টে রাজ্যপুলিশের ওপর চাপ সৃষ্টি করতে চাইছেন মুকুল রায়। কিন্তু কোনও ষড়যন্ত্র করেই কিছু করা যাবে না সেই বার্তাই দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

কোচবিহারের জনসভা থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করে নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, "দিদি ভয় পেয়েছে।" চূড়াভাণ্ডারের সভা থেকে এর পালটা দেন তৃণমূল সুপ্রিমো। বলেন, "আপনি হাওলা মামলার নায়ককে নিয়ে মিটিং করছেন। আর বলছেন দিদি ভয় পেয়েছে। দিদি কি ভয় পাওয়ার লোক ? আপনারা তো জীবনে ছড়ির বাড়িও খাননি। আর দিদিকে তো মারতে মারতে পা থেকে মাথা পর্যন্ত মেরেছে। আমার সারা শরীর ক্ষতবিক্ষত।"

চূড়াভাণ্ডারের পর রবিবার ফালাকাটার জনসভা থেকেও মুকুলকে আক্রমণ করেন মমতা। বলেন, "সারদা, নারদা, হাওলা মোদিবাবুর বাঁশিওয়ালা। মোদিবাবু সারদা, নারদা মামলায় সবচেয়ে বড় অভিযুক্ত আপনার পাশে। আমরা যে সব অভিযুক্তদের দল থেকে ছেঁটে ফেলে দিয়েছি আজ তারাই আপনার দলের সম্পদ।"

Post a Comment

0 Comments