ads

লোকসভা নির্বাচনের মুখে ফের শাসক দল তৃনমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ প্রকাশ্যে এল দিনহাটায় | UBG NEWS



UBG NEWS, ওয়েব ডেস্ক : লোকসভা নির্বাচনের মুখে ফের শাসক দল তৃনমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ প্রকাশ্যে এল দিনহাটায়। এলাকার বিধায়ক ও ব্লক সভাপতিকে ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখানোর ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ল। সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে দিনহাটা ২ নম্বর ব্লকের নাজিরহাট ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। এদিন দুপুরে সেখানে দলীয় প্রার্থী পরেশ চন্দ্র অধিকারীর সমর্থনে নির্বাচনী সভা করতে যান দলের ওই এলাকার বিধায়ক উদয়ন গুহ ও দিনহাটা দুই নং ব্লকের তৃনমুলের সভাপতি মীর হুমায়ুন কবীর। সেই সময়ই দলের শীর্ষ স্থানীয় এই দুইনেতাকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয় এলাকার তৃনমুলের কর্মী সমর্থকরা। ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই রীতিমত অস্বস্তিতে পড়েছে কোচবিহার জেলা তৃনমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব।

এদিকে দলীয় প্রার্থীর সমর্থনে কোচবিহারে নির্বাচনী জনসভা করতে আসছেন তৃনমূল যুবর সর্বভারতীয় সভাপতি তথা কোচবিহার জেলার পর্যবেক্ষক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃনমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিনহাটায় সভা করবেন। তাঁর আগে দলের কর্মীদের ওই ক্ষোভ বিক্ষোভ নিয়ে জেলা নেতৃত্বের মধ্যে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

তৃণমূল কংগ্রেসের দিনহাটা ২ নম্বর ব্লক সভাপতি তথা জেলা পরিষদের কৃষি কর্মাধ্যক্ষ মীর হুমায়ূন কবির বলেন, “আমারা এদিন শালমারায় একটি কর্মীসভা করি। সেই সভার শেষে নির্বাচন পরিচালনার সংগঠনগত ভাবে কাকে দায়িত্ব দেওয়া হবে, তা ঘোষণা করার জন্য দাবী ওঠে। কিন্তু একটা সিধান্ত সঠিক ভাবে নিতে সাথে সাথে কিছু করা যায় না। আমরা আজ অথবা কালকের মধ্যে ওই সমস্যা মিটিয়ে দেব।”

ওই ঘটনায় বিক্ষোভের মুখে পড়ার কথা অস্বীকার করে দিনহাটার তৃণমূল বিধায়ক উদয়ন গুহ বলেন, “সভার পরে কর্মীদের মধ্যে দুটি পক্ষ দুই রকম দাবী করছে। আমরা দাবী গুলো শুনেছি সব পক্ষকে নিয়ে সমস্যা মিটিয়ে দেওয়া হবে।”

ওই এলাকার পুরোনো তৃনমূল নেতা বলে পরিচিত প্রাক্তন জেলা পরিষদ সদস্য তরণী কান্ত রায়। এক সময় ২০১৩ সাল থেকে ৫ বছর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান পদে ছিলেন তরণী বাবুর স্ত্রী। কিন্তু দলের গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে এলাকা ছাড়তে হয় তরণীবাবুকে। পঞ্চায়েত সমিতি থেকে তরণী বাবু ও গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে তাঁর স্ত্রী জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হলেও দীর্ঘ দিন এলাকায় ঢুকতে পারেননি তিনি। ঘনিষ্ঠ মহলে এবারে লোকসভা নির্বাচনের সমস্ত কাজ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেওয়ার কথাও জানিয়ে দিয়েছিলেন। এর ফলে ওই এলাকায় তৃণমূল সংগঠন কার্যত ভেঙে পড়েছিল। প্রচারে গিয়ে লোক জমায়েত করতে পারছিলেন না তৃণমূল নেতারা। শেষ পর্যন্ত নেতৃত্বের অনুরোধে এদিন ওই এলাকায় দলের একটি কর্মী সভায় যান তরণী বাবু। তাঁর আসার খবরে সেই কর্মী সভায় ব্যাপক জমায়েত হয়। সেখানে নেতৃত্বরা ভোটের প্রচার, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভায় লোক জমায়েত নিয়ে বক্তব্য রাখেন তিনি। অবশ্য তরণীবাবুকে ফের দলের গুরুত্বপুর্ণ দায়িত্বে ফিরিয়ে আনা হল কিনা, তা নিয়ে কেউ কোন মন্তব্য করতে চাননি। এরপরেই সাধারণ কর্মীরা সভায় আসা বিধায়ক ও ব্লক সভাপতিকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে বলে জানা যায়।

অন্যদিকে তরণী বাবু বিরোধী একটি শিবিরও শ্লোগান দিতে শুরু করে। ফলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। শেষ পর্যন্ত সমস্যার সমাধান না করেই নেতৃত্বরা সেখান থেকে চলে আসেন বলে জানা গিয়েছে। যদিও এব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে রাজী হননি তরণীবাবু।

দেখুন ভিডিও 👇

https://youtu.be/PzU_gufvJOY

Post a Comment

3 Comments

A crucial thing there are think about with the web company will be the
portfolio. Make sure that you are keeping receipts and transaction logs for everything.
All achievement, all wealth, have their roots in ideas. http://mcafee.bravesites.com/entries/general/the-supreme-ecommerce-web-developers-key
Meal contains is quite similar to your ones above,
but efforts to look more scientific. Blackjack, Video Poker,
Slot machines and Roulette are helpful tips 4 Internet casino competitions. http://Www.Secrettunnel.net/__media__/js/netsoltrademark.php?d=918kiss.party%2Fhome%2F3win8%2F5175-3win8
scr888 download said…
Their firm is designing businesses. Keep your newsletters
interesting so they are read. I understand that's the way i
am. Advertise on well-liked websites and look engines. http://scr888.pw/index.php/download/31-918kiss-scr888