ads

কোচবিহারে রবীন্দ্রনাথ ঘোষ ও দিলীপ ঘোষের একে অপরকে খোঁচা মেরে পরামর্শ প্রদান | UBG NEWS

UBG NEWS, কোচবিহার : কোচবিহার জেলায় লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে দুই ঘোষের তরজা জমজমাট পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। কোচবিহারে এসে শাসক দলের মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষকেই টার্গেট করছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। একবার বলছেন রবি ঘোষের সাথে লড়াই করছেন নিশীথ প্রামাণিক। আবার বলছেন যদি একবার রবি ঘোষের দেখা পান তাই কোচবিহারে আসলেই প্রাতঃভ্রমণে বের হন তিনি। রবীন্দ্রনাথ ঘোষও কম নয়, পাল্টা জবাবে তিনি বলেন একবার দেখা হলে মাথা ঠাণ্ডা রাখার জন্য সাগর দীঘির জলে দাঁড়িয়ে থাকার পরামর্শ দিতাম। সবমিলিয়ে কোচবিহারে লোকসভা নির্বাচনের প্রচার যেন গতকাল থেকে দুই ঘোষের লড়াইয়ে পরিণত হয়েছে।

গতকালই কোচবিহারে আসেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। প্রথমে মাথাভাঙা ও পরে দিনহাটার গোসানিমারিতে পরপর দুটি সভা করেন তিনি। প্রথম সভায় নিশীথ প্রামাণিককে প্রার্থী করার কারণ জানাতে গিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, তৃণমূলে থেকেও নিশীথ প্রামাণিক রবি ঘোষের বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন। দল থেকে বেরিয়ে এসেও লড়াই করছেন। আর সেই কারণেই নিশীথ প্রামাণিককে প্রার্থী করা হয়েছে।

এদিকে কোচবিহারে আসলেই প্রাতঃভ্রমণে বের হতে দেখা যায় দিলীপ বাবুকে। এবার ভোটের প্রচারে এসে প্রাতঃভ্রমণে বের হয়ে জনসংযোগ করবেন, এটা স্বাভাবিক। কিন্তু এদিন সকালে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে হাসি মুখে দিলীপ বাবু জানান, “রবি ঘোষের সাথে যদি দেখা হয়ে যায়, সেই কারণেই তিনি প্রাতঃভ্রমণে বের হয়েছেন।এরপরেই সাংবাদিকরা ছুটলেন তৃণমূল নেতা রবীন্দ্রনাথ ঘোষের পাল্টা প্রতিক্রিয়া নিতে। প্রচারে বের হওয়ার আগে নিজের বাড়ির দফতরে বসে সাংবাদিকদের কাছে দিলীপ বাবুর বক্তব্য শুনে তিনি নিজেও হাসি মুখে বললেন, “দিলীপ ঘোষ অসুস্থ। তাই সুস্থ হওয়ার জন্য কোচবিহারের রাজাদের তৈরি সাগরদীঘির পাড়ে প্রাতঃভ্রমণে বের হয়েছেন। আমার সাথে দেখা হলে তাঁকে সাগর দীঘির জলে ঘণ্টা খানেক দাঁড়িয়ে থাকার পরামর্শ দিতাম। যাতে মাথা ঠাণ্ডা থাকে। এখন অনেক জায়গায় বক্তব্য রাখতে হবে। মাথা ঠাণ্ডা না থাকলে তো ভুলভাল বলে ফেলতে পারেন।

Post a Comment

0 Comments